অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে টিকার আওতায় ৭০ ভাগ মানুষ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী 


পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন

দেশের ২৫ বছরের ওপরের জনসংখ্যার প্রায় ৭০ ভাগকে টিকার আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেছেন দেশে করোনার টিকার কোনো সংকট নেই। বিভিন্ন দেশ থেকে টিকা আসছে। দেশেও টিকা উৎপাদনের প্রস্তুতি চলছে। আজ সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের দেশে কভিড ম্যানেজমেন্ট খুব ভালো হয়েছে। আমরা টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন কিনে মানুষকে বিনে পয়সায় তা দিচ্ছি। শুরুতেই আমাদের প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন করোনা টেস্ট ও ভ্যাকসিন দেশের মানুষকে বিনামূল্যে দেবেন। এখনো এটা চলমান আছে।’ ভ্যাকসিন আমদানি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রথমে ভারত থেকে ভ্যাকসিন আমদানি শুরু করি। কারণ ভারতের ভ্যাকনিস বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত। পরে সেখানে মহামারী বেড়ে যাওয়ায় তারা ভ্যাকসিন দেওয়া স্থগিত রাখে। এ অবস্থায় আমরা চীন থেকে ভ্যাকসিন আমদানির সিদ্ধান্ত নেই। চীন ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য প্রথমেই আমাদের কাছে এসেছিল। কিন্তু আমাদের চিকিৎসকরা তাতে আগ্রহ দেখাননি। কিন্তু ভারত ভ্যাকসিন দেওয়া স্থগিত রাখায় আমরা অসুবিধায় পড়ে চীন থেকে আমদানির পরিকল্পনা নিই। চীনও জানায়, তারা তাদের দেশের ভিতরে ও বাইরে প্রায় ১০০ মিলিয়ন ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেছে। তাদের ভ্যাকসিনে কোনো সমস্যা হচ্ছে না। এরপর প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন সাপেক্ষে চীন থেকে আমদানি শুরু হয়।’

XS
SM
MD
LG