অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাইডেন প্রশাসন আস্থাশীল, সরকারের টিকা নির্দেশনা বলবৎ হবে


ইলিনয়ে এক অনুষ্ঠানে করোনাভাইরাসের টিকা নেয়ার গুরুত্ব নিয়ে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। (ফাইল ফটো- রয়টার্স)

একশো বা তার অধিক সংখ্যক কর্মী রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এমন সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সকলের টিকা নিশ্চিত করা অথবা কিছুদিন পর পর তাদের করোনার পরীক্ষা করানোর নিয়ম চালুর বিষয়ে আদালতের স্থগিতাদেশ থাকার পরও প্রেসিডেন্ট বাইডেনের লক্ষ্য পূরণ হবে বলে আশা করছে হোয়াইট হাউজ।

হোয়াইট হাউজের চীফ অব স্টাফ রন ক্লাইন এনবিসির মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে বলেছেন, “আমি বেশ আত্মবিশ্বাসী যে শুধুমাত্র সাময়িক আদেশ হিসাবে নয়, চূড়ান্ত বিচারে টিকা দেয়ার প্রয়োজনীয়তার বৈধতা কার্যকরী হবে”।

বাইডেনের টিকাদান নির্দেশনা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ক্লাইন বলেন এতে প্রাইভেট খাতের ৮ কোটি ৪০ লাখ কর্মী উপকৃত হবেন। যুক্তরাষ্ট্রে এই মহামারী রোধ করতে সাধারণ জ্ঞান হিসাবে নিয়ে চৌঠা জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা এই কার্যক্রম।

গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট দেশের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের রাজ্য মেইনের স্বাস্থ্য কর্মীদের টিকা বাধ্যতামূলক সংক্রান্ত একটি নীতিমালা অনুমোদন করেছেন। তবে ২২শে নভেম্বরের মধ্যে প্রাইভেট খাতের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কিংবা ৪ কোটি ফেডারেল কর্মী এবং কনট্রাক্টরদের টিকাদান সংক্রান্ত বাইডেনের নির্দেশ বিবেচনার বিষয়টির এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের ৩৩ কোটি ৩০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে ১৯ কোটি ৩০ লাখেরও বেশী মানুষ পুরোপুরি টিকা নেয়া সম্পন্ন করেছেন। তবে বহু প্রাপ্তবয়স্ক অ্যামেরিকান নানা কারণে টিকা নিতে অস্বীকার করেছেন। এর ফলে মহামারী নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের প্রয়াস বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী করোনাভাইরাস মহামারীর শুরু থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ ৫০ হাজার মানুষ মারা গেছেন। এই সংখ্যা বিশ্বের যে কোন দেশে করোনাভাইরাসে মারা যাওয়ার সংখ্যার চেয়ে বেশী।

XS
SM
MD
LG