অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভ্রমণপিপাসু সেই চা বিক্রেতার মৃত্যু, মৃত্যুর আগে ঘুরেছেন ২৬টি দেশ


কেআর বিজয়ন ও তার স্ত্রী মোহনা

২০০৭ সালে শুরু তার বিশ্বভ্রমণ। ভ্রমণের নেশা তাকে আটকে রাখতে পারেনি চার দেওয়ালের জীবনে। ইচ্ছা থাকলেই শখ পূরণ করা যায় প্রমাণ করেছিলেন কেরলের কে আর বিজয়ন। সঙ্গী ছিলেন স্ত্রী। সেই কেআর বিজয়ন ৭১ বছর বয়সে মারা গেলেন। শুক্রবার নিজের বাসভবনেই মৃত্যু হয় তার।

তার মৃত্যুতে অপূর্ণ থেকে গেল জাপানে যাওয়ার পরিকল্পনা। স্ত্রী মোহনাকে নিয়ে সপ্তাহ দুই আগেই ফিরেছেন রাশিয়া থেকে। ইচ্ছা ছিল জাপান সফরের। তারপর ভিয়েতনাম ও কম্বোডিয়ার পরিকল্পনাও ছকে রেখেছিলেন দম্পতি।

পেশায় চা বিক্রেতা ছিলেন কেআর বিজয়ন। রোজগারের টাকা থেকে জমানো শুরু করেন বিশ্ব ভ্রমণের জন্য। গত ১৪ বছরে ২৬টি দেশ ঘুরেছেন এই দম্পতি। ২০০৭ সালে ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিয়ে মিশরের উদ্দেশে বেরোন কে আর বিজয়ন ও মোহনা। ভ্রমণের আগেই ঋণ নিয়েছেন, আবার চা বিক্রির উপার্জন থেকে তা শোধ করেছেন।

তবে পরবর্তীকালে বহু পৃষ্ঠপোষক আর্থিক সাহায্য করতে এগিয়ে এলে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাদের। ভ্রমণপিপাসু দম্পতি ঘুরে বেড়িয়েছেন একের পর এক দেশ। এমনকি তাদের নিয়ে লেখা একটি বইও প্রকাশিত হয়। ব্র্যান্ড অ্যাম্বসেডরও হয়েছেন এই দম্পতি।

তবে কে আর বিজয়নের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে আসে। ভারতের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের তরফে শোক প্রকাশ করা হয়। একাধিক মানুষ তার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ। কেরলের কোচিতে সেলিম রজন সড়কের পাশে পড়ে থাকবে তার দোকানটা আর থাকবে দোকানের চারপাশে আটকানো তাদের ভ্রমণের ছবিগুলো।

XS
SM
MD
LG