অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাজাকার তালিকার দায়িত্ব নিচ্ছেন না কেউ


Bangladesh
Bangladesh

বাংলাদেশে রাজাকারের তালিকা নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে যে তালিকা পাওয়া গেছে তাই প্রকাশ করা হয়েছে। রোববার এই তালিকা প্রকাশের পর সর্বমহলেই প্রতিক্রিয়া হয়েছে।

এ সম্পর্কে ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:50 0:00

রাজাকারের তালিকা নিয়ে বিতর্ক যখন তুঙ্গে তখন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হক বলেছেন, এতে তার কোন হাত নেই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে যে তালিকা পাওয়া গেছে তাই প্রকাশ করা হয়েছে। মোজাম্মেল হকের এই বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তার কথায়, রাজাকারের তালিকায় থাকা কিছু নাম বাদ দিতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তা করা হয়নি। মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের আরো নিশ্চিতভাবে পর্যবেক্ষণ করা উচিত ছিল। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম আসা দুঃখজনক।
রোববার এই তালিকা প্রকাশের পর সর্বমহলেই প্রতিক্রিয়া হয়েছে। বিশেষ করে রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে। সরকারের ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের নামও এসেছে বেশ কিছু। এই অবস্থায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হক সংবাদ মাধ্যমে একটি ব্যাখ্যা পাঠিয়েছেন। এতে বলা হয়েছে, রাজাকারের তালিকায় ভুলভাবে কারো নাম এসে থাকলে আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের তালিকা থেকে বাদ দেয়া হবে। প্রকৃত পক্ষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে নতুন কোন তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। মন্ত্রণালয়ের তরফে এ জন্য দুঃখ প্রকাশ করা হয়। সকালে এক অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী নিজের দায়িত্ব এড়িয়ে যান।
মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, অভিযোগ পাওয়া গেছে এ তালিকায় বেশ কিছু নাম এসেছেÑ যারা রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস, শান্তি কমিটি বা স্বাধীনতা বিরোধী নন বরং মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের বা মুক্তিযোদ্ধা। এ ধরনের কোন ব্যক্তির নাম তালিকায় কিভাবে এসেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

XS
SM
MD
LG