অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আলাপন: বাংলাদেশে শিশুদের এক-তৃতীয়াংশ জলবায়ু ঝুঁকির মধ্যে


জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাংলাদেশে শিশুদের এক-তৃতীয়াংশ নানাবিধ ঝুকির মধ্যে রয়েছে। জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ শুক্রবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলেছে, বাংলাদেশের ১ কোটি ৯০ লাখ শিশু ঘূর্ণিঝড়-বন্যাসহ জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুকিতে রয়েছে এবং ভবিষ্যতেও তাদের এসব মোকাবেলা করতে হবে।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাংলাদেশে শিশুদের এক-তৃতীয়াংশ নানাবিধ ঝুকির মধ্যে রয়েছে। জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ শুক্রবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলেছে, বাংলাদেশের ১ কোটি ৯০ লাখ শিশু ঘূর্ণিঝড়-বন্যাসহ জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুকিতে রয়েছে এবং ভবিষ্যতেও তাদের এসব মোকাবেলা করতে হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আবহাওয়া ও প্রকৃতির উচ্চমাত্রার পরিবর্তন যেমন ঝড়, বন্যা, জলোচ্ছাস, খরা এবং দীর্ঘমেয়াদী প্রতিক্রিয়া হিসেবে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি, লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়ার বিরূপ ফলাফল হিসেবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো বাস্তুচ্যুত হয়ে শহরমুখী হয়ে পড়ছেন। ফলে শিশুরা স্বাস্থ্য এবং শিক্ষা সুবিধাসহ নানা মৌলিক চাহিদা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্ষতিগ্রস্ত ১ কোটি ৯০ লাখ শিশুর মধ্যে ১ কোটি ২০ লাখ শিশুই নদী ভাঙনের শিকার। ক্ষতিগ্রস্ত শিশুদের মধ্যে ৪৫ লাখের বসবাস উপক‚লীয় এলাকায়-যাদের মধ্যে ৫ লাখের মতো রোহিঙ্গা শিশুও রয়েছে।

আর ক্ষতিগ্রস্ত ৩০ লাখ শিশু বসবাস খরাপীড়িত এলাকায়। আর এসব কারণে বাংলাদেশের শহর-নগরে শিশু উদ্বাস্তুর সংখ্যা বর্তমানে ৬০ লাখের মতো। ২০৫০ সালের দিকে এ সংখ্যা হবে দ্বিগুণ। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে যেসব ঝুকির সৃষ্টি হচ্ছে শিশুর জন্যে এবং ভবিষ্যতেও হতে পারে সে সব বিষয়ে বিশ্লেষণ করেছেন বিশিষ্ট জলবায়ু ও পরিবেশ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ প্রফেসর আইনুন নিশাত।

বিষয়টি নিয়ে আজকের আলাপনের অতিথী ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরিবেশ বিজ্ঞানী ড. আতিক রহমান এবং বাংলাদেশ পরিবেশ সাংবাদিক ফোরাম সভাপতি কামরুল ইসলাম।

please wait

No media source currently available

0:00 0:33:24 0:00

XS
SM
MD
LG