অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সন্ত্রাসীদের সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন করতে তালিবানদের প্রতি চীনের আহ্বান


চীনের সিনহুয়া নিউজ এজেন্সি প্রকাশিত এই ছবিতে, তালেবান নেতা মোল্লা আবদুল গণি বরাদার এবং চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ি কে এক বৈঠকে এক সাথে দেখা যাচ্ছে। বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১, তিয়াঞ্জিন।

 বুধবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এক বৈঠকে আফগানিস্তানের  তালেবান বিদ্রোহী গোষ্ঠীর নেতাদের চাপ দিয়েছেন এই বলে যে, তাদের সকল সন্ত্রাসী দলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে, যার মধ্যে চীনবিরোধী পূর্ব তুর্কিস্তান ইসলামিক আন্দোলন, বা ইটিআইএম রয়েছে।

বুধবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এক বৈঠকে আফগানিস্তানের তালেবান বিদ্রোহী গোষ্ঠীর নেতাদের চাপ দিয়েছেন এই বলে যে, তাদের সকল সন্ত্রাসী দলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে, যার মধ্যে চীনবিরোধী পূর্ব তুর্কিস্তান ইসলামিক আন্দোলন, বা ইটিআইএম রয়েছে।
উভয় পক্ষের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তালিবানের কাতার কার্যালয়ের প্রধান, তালেবান উপ রাজনৈতিক প্রধান মোল্লা আবদুল গণি বারাদার, নয় সদস্যের এক প্রতিনিধি দলকে নিয়ে উত্তরাঞ্চলীয় শহর তিয়াঞ্জিনে আলোচনায় বসেন।
চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রক থেকে বলা হয়েছে, "ওয়াং এর মতে, আফগান তালিবান গোষ্ঠী আফগানিস্তানের একটি গুরুত্বপূর্ণ সামরিক ও রাজনৈতিক শক্তি । প্রত্যাশা করা হয় যে তারা দেশের শান্তি, মীমাংসা এবং পুনর্নির্মাণ প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে"।


বৈঠকটি এমন সময় হলো যখন যুক্তরাষ্ট্র এবং নেটো, আফগানিস্তান থেকে বাকি প্রায় সব সৈন্য প্রত্যাহার করে নিয়েছে। সেনাবাহিনী প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তটি এসেছিল ওয়াশিংটনের সাথে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তালিবানদের চুক্তির পর।
তবে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থ্যতায় আফগানিস্তানের বিদ্রোহী দলগুলোর সাথে আফগান সরকারের মধ্যকার সংলাপ ধীরগতিতে চলার কারণে শান্তি চুক্তি চূড়ান্ত রুপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, বিদেশী বাহিনী গুলো চলে যাওয়ার পরে আন্তঃ-আফগান সংঘাত পুরোপুরি গৃহযুদ্ধে পরিণত হতে পারে।

XS
SM
MD
LG