অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়া, চীন, ইরানের সাথে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে ব্লিংকেন জি-৭ বৈঠকে যোগ দিলেন


জি ৭ সম্মেলনে ৭ জন পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের দেখা যাচ্ছে। ১১ই ডিসেম্বর, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন গ্রুপ ভফ সেভেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের আলোচনায় যোগ দিচ্ছেন। এই বৈঠক শনিবার লিভারপুলে শুরু হয়েছে। বৈঠকে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র সচিব লিজ ট্রাসের কর্তৃত্ববাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

বিশ্বের ধনী গণতান্ত্রিক দেশের মন্ত্রীরা, অনানুষ্ঠানিকভাবে জি-৭ নামে পরিচিত এই সংগঠনে যখন ইউক্রেনের সঙ্গে অভিন্ন সীমান্তে রাশিয়ার সৈন্য মোতায়েন, ইরানের পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা নি্বৃত্ত করা এবং মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর দখলের বিষয়ে আলোচনার সময়ে ট্রাস এই আবেদন রাখেন।

ট্রাস দুই দিনের অধিবেশন শুরু করার সময় নির্দিষ্ট কোন দেশের নাম উল্লেখ না করে বলেন, "স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের সীমানা সীমিত করতে চাইছে যারা এমন আগ্রাসীদের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর জন্য আমাদের দৃঢ়ভাবে একত্রিত হওয়া দরকার,"।

যুক্তরাষ্ট্রের এই শীর্ষ কূটনীতিক শুক্রবার ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস এবং ফ্রান্স ও জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের সাথে দেখা করেছেন এবং ইরানের পারমাণবিক আলোচনাকে কীভাবে এগিয়ে নেওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা করেছেন। ব্লিংকেন শনিবার জাপান, ইতালি ও অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে আলাদাভাবে বৈঠক করছেন।

ব্লিংকেন ৯ থেকে ১৭ই ডিসেম্বরের সফরের অংশ হিসাবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ান দেশগুলির (আসিয়ান) পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের সাথে ব্যক্তিগতভাবে একাধিক বৈঠক করবেন। এই সফরের সময়ে তিনি ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড এবং হাওয়াইতেও যাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের এই সফরের একটি অংশ হল, ২০২২ সালের প্রথম দিকে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনের একটি নতুন "ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামো" শুরু করার লক্ষ্যে আসিয়ান এর সাথে তার "কৌশলগত অংশীদারিত্ব"কে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।

এই প্রথমবারের মতো লিভারপুলে অনুষ্ঠিত জি-৭ পররাষ্ট্র ও উন্নয়ন মন্ত্রীদের বৈঠকে আসিয়ান দেশগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করা হল৷

শীর্ষ কূটনীতিকরা ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তাদের প্রভাব বাড়ানোর জন্য চীনের প্রচেষ্টার পাশাপাশি ইউক্রেনে রাশিয়ার সেনা গঠন এবং বিশ্বব্যাপী করোনভাইরাস মহামারী নিয়ে আলোচনা করছেন।

পরের সপ্তাহে ব্লিংকেন ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায়, ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের তাৎপর্যের উপর মন্তব্য করবেন এবং যুক্তরাষ্ট্রে ও ইন্দোনেশিয়ার কৌশলগত অংশীদারিত্বের গুরুত্বের ওপর জোর দেবেন।

XS
SM
MD
LG