অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মালয়েশিয়ার বন্যায় এক ডজনেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি, ৭০,০০০ বাস্তুচ্যুত


সেলাঙ্গর যেটি রাজধানী কুয়ালালামপুরকে ঘিরে দেশের সবচেয়ে ধনী এবং সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ রাজ্য, সেটি এখন সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলগুলির মধ্যে একটি। সেখানে এলাকাবাসীদের বন্যার পানিতে হেঁটে যেতে দেখা যাচ্ছে। ২১শে ডিসেম্বর, ২০২১, ছবি-এএফপি

মালয়েশিয়ার সামরিক বাহিনী মঙ্গলবার ব্যাপক বন্যার পরে নৌকায় করে বাড়িতে আটকে পড়া নিরুপায় লোকদের জন্য খাবার বিতরণ করেছে । সেখানে মৃতের সংখ্যা ১৪তে পৌঁছেছে এবং ৭০,০০০ এরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে ।

কয়েকদিনের মুষলধারে বৃষ্টির কারণে সপ্তাহান্তে সারা দেশে বছরের সবচেয়ে মারাত্মক বন্যা শুরু হয় , শহর ও গ্রাম জলাবদ্ধ হয়ে গেছে এবং প্রধান রাস্তাগুলি বন্ধ হয়ে গেছে।

সেলাঙ্গর যেটি রাজধানী কুয়ালালামপুরকে ঘিরে দেশের সবচেয়ে ধনী এবং সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ রাজ্য, সেটি এখন সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলগুলির মধ্যে একটি।

ঐ রাজ্যের রাজধানী শাহ আলমের কিছু অংশ এখনও পানিতে নিমজ্জিত এবং নৌকায় করে সামরিক কর্মীরা বাড়িতে এবং সরকারী আশ্রয়ে আটকে থাকা লোকদের জন্য খাবার বিতরণ করেছে।

বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় কার্তিক সুব্রামণি তার বাড়ি ছেড়ে যান, এবং তার পরিবারকে নিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান নেওয়ার আগে ৪৮ ঘন্টার জন্য একটি স্কুলে আশ্রয় নেন।

২৯ বছর বয়সী কার্তিক সুব্রামণি এএফপিকে বলেন, "আমার বাড়ি সম্পূর্ণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, আমার দুটি গাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে।"

"এটি আমার জীবনে দেখা সবচেয়ে খারাপ বন্যা। কেন্দ্রীয় সরকার চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তারা জনগণের জীবন রক্ষা ও সুরক্ষার প্রাথমিক কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছে।"

হাজার হাজার জরুরি পরিষেবা এবং সামরিক কর্মী কাজ করছেন, তবে সমালোচকরা বলছেন যে এটি যথেষ্ট নয় এবং স্বেচ্ছাসেবীরা উদ্ধার প্রচেষ্টার জন্য খাবার এবং নৌকা সরবরাহ করতে পদক্ষেপ নিয়েছে।

XS
SM
MD
LG