অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগানিস্তানে নারী ও পুরুষ শিক্ষার্থীদের জন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আবার খুলেছে


আফগানিস্তানের লাগমান প্রদেশের লাগমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে পাহারায় তালিবান যোদ্ধারা। (ছবি- এএফপি)

গত আগস্টে তালিবান যুদ্ধ-বিদ্ধস্ত আফগানিস্তান দখল করার পর প্রথমবারের মতো গত বুধবার দেশটির উষ্ণতর প্রদেশগুলোতে নারী এবং পুরুষ শিক্ষার্থীদের জন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তালিবান সরকারের নির্দেশের সাথে সঙ্গতি রেখে ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা সময়ে ক্লাসের ব্যবস্থা করেছে।

পূর্ব নানগারহার প্রদেশের স্টেট ইউনিভার্সিটির ছাত্রী বিবি হাওয়া জানিয়েছেন, ক্লসরুমে ফিরতে পেরে অন্যান্য ছাত্রীদের মতো তিনিও “অত্যন্ত আনন্দিত।“

জাতিসংঘের আফগানিস্তান মিশনের প্রধান ডেবরাহ লিয়ন্স নারীদের শিক্ষা পুনরায় শুরু করার অনুমতি দেয়ার তালিবানের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন।

সব রাষ্ট্র চালিত বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেয়েদের মাধ্যমিক স্কুলগুলো তালিবান আফগানিস্তান দখল করে সহশিক্ষা কার্যক্রম নিষিদ্ধ করার পরই বন্ধ হয়ে যায়।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই ইসলামিস্ট দলটিকে এখনো আফগানিস্তানের বৈধ শাসক হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি। তালিবান সরকার আরো আন্তর্জাতিক সাহায্য এবং বিদেশের তহবিলে থাকা তাদের অর্থ মুক্ত করতে চাইছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় আফগানিস্তানে নারীশিক্ষার দাবি তোলে।

আগস্টের শেষে যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্যান্য পশ্চিমা দেশগুলো সৈন্য প্রত্যাহার করার পর আফগানিস্তানে আন্তর্জাতিক সাহায্য স্থগিত করা হয় যা যুদ্ধ-বিদ্ধস্ত দেশটির মানবিক সংকটকে আরও সংকটাপন্ন করে তোলে।

XS
SM
MD
LG