অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বেঙ্গলসকে হারিয়ে সুপার বোল বিজয়ী লস অ্যাঞ্জেলস র‍্যামস


রবিবার অনুষ্ঠিত ন্যাশনাল ফুটবল লিগে সিনসিনাটি বেঙ্গলসকে হারিয়ে ট্রফি জিতেছে লস অ্যাঞ্জেলস র‍্যামস। ট্রফি হাতে দলের লাইনব্যাকার ভন মিলার। ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২। (ছবি- এপি)

ন্যাশনাল ফুটবল লিগের রবিবারের সুপার বোল প্রতিযোগিতায় শেষ মুহুর্তে খেলায় ফিরে, শেষের দুই মিনিটে একটি টাচডাউনের মাধ্যমে ২৩-২০ স্কোরে সিনসিনাটি বেঙ্গলসকে হারিয়ে ট্রফি ছিনিয়ে নিয়েছে লস অ্যাঞ্জেলস র‌্যামস।

খেলার মধ্যভাগের বিরতির সময়ে ১৩-১০ স্কোরে এগিয়ে থাকলেও, দ্বিতীয়ার্ধে দ্রুতই পিছিয়ে পড়তে থাকে র‌্যামস। বেঙ্গলসের রিসিভার টি হিগিনস এ সময়ে একটি সেভেন্টি ফাইভ ইয়ার্ড টাচডাউন স্কোর করেন।

২০-১৬ স্কোরে এগিয়ে থেকে ফাইনাল কোয়ার্টার শুরু করে সিনসিনাটি। কিন্তু এরপর স্কোরবোর্ডে আর কিছুই যোগ করতে পারেনি তারা।

নির্ধারিত সময়ের মাত্র ছয় মিনিট বাকি থাকতে র‌্যামস কোয়ার্টারব্যাক ম্যাথিউ স্ট্যাফোর্ড পাঁচ মিনিটে ৭৯ ইয়ার্ড অতিক্রম করে কুপার কাপকে পাস করলে তিনি ম্যাচবিজয়ী ওয়ান-ইয়ার্ড টাচডাউনটি করেন।

শেষ চেষ্টায় বেঙ্গলস মাঠের অর্ধেকটাই মাত্র অতিক্রম করতে পারে। বেঙ্গলস বলের দখল হারিয়ে সেটি উল্টো দিকে যাত্রা শুরু করলে, র‌্যামস সমর্থকদের মাঝে উল্লাসের ধ্বনি শুরু হয়।

কুপ-কে ম্যাচের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ঘোষণা করা হয়। ম্যাচ শেষে তার খাতায় ৯২ ইয়ার্ডের বিনিময়ে আটটি ক্যাচ এবং দুইটি টাচডাউন লেখা হয়।

তার অর্জনের বিষয়ে ম্যাচ শেষে একটি প্রশ্নের উত্তরে কুপ বলেন, “আমি নিজেকে এর যোগ্য মনে করি না। এখানে উপস্থিত খেলোয়াড়রা আমাকে চ্যালেঞ্জ করে, আমাকে উদ্বুদ্ধ করে, এবং আমি সেটির জন্য অত্যন্ত কৃতজ্ঞ।”

রবিবার লস অ্যাঞ্জেলস এর ৩৬ বছর বয়সী কোচ শন ম্যাকভে, সুপার বোল বিজয়ী কনিষ্ঠতম হেড কোচ হয়ে উঠেন।

প্রায় ২০ বছর সেইন্ট লুই-তে খেলার পর, ২০১৬ সালে আবারও লস অ্যাঞ্জেলসে ফিরে আসে র‌্যামস। তারা দ্বিতীয় এমন দল যারা তাদের নিজেদের রাজ্যের স্টেডিয়ামে সুপার বোল জিতল। এর আগে গত বছর ট্যাম্পা বে তাদের হোম স্টেডিয়ামে প্রতিযোগিতাটিতে জয়লাভ করেছিল। ১৯৯৯ সালের পর আবারো এই প্রথম সুপার বোল জিতল র‌্যামস।

১৯৮৮ সালের পর বেঙ্গলস এই প্রথম সুপার বোলে অংশগ্রহণ করতে পেরেছিল।

XS
SM
MD
LG