অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব বাংলাদেশের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজে পড়বে না—জানালেন পরিকল্পনামন্ত্রী মান্নান


পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নকশা। (ছবি- ইউএনবি)

ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে বাংলাদেশের রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। কারণ প্রকল্পটি সম্পূর্ণভাবে মস্কোর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় চুক্তির আওতায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (২ মার্চ) বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা জানান এম এ মান্নান।

তিনি বলেন, “সরঞ্জাম, জনবল ও অর্থ (প্রকল্পের জন্য) একক চ্যানেলের মাধ্যমে আসছে। এখানে কোনো তৃতীয় পক্ষ জড়িত নয়। সুতরাং, প্রকল্পটিতে সরাসরি কোনো প্রভাব পড়বে না।”

এনইসির বৈঠকে রাশিয়ার নির্মিত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজে যুদ্ধ ও এর প্রভাব নিয়ে আলোচনা হয়েছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে এম এ মান্নান বলেন, “বাংলাদেশ যেকোনো যুদ্ধের বিপক্ষে। প্রধানমন্ত্রী স্পষ্টভাবে বলেছেন, আমরা একটি শান্তিপ্রিয় দেশ। আমরা শান্তি চাই।”

তারা যুদ্ধ করলেও দুই দেশই বাংলাদেশের বন্ধু বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এম এ মান্নান বলেন, “ইউক্রেন আমাদের বন্ধুরাষ্ট্র এবং রাশিয়াও দীর্ঘকাল ধরে আমাদের বন্ধুরাষ্ট্র। আমরা সবসময়ই আমাদের মুক্তিযুদ্ধে রাশিয়ার ভূমিকাকে স্বীকার করি। তাদের সাহসী ভূমিকার কারণে অনেক বাধা সত্ত্বেও আমরা স্বাধীনতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।”

তিনি বলেন, “আগুন লাগলে তার উত্তাপ অনুভব করতে হবে। কিন্তু যে বিষয়টি বিবেচনা করা দরকার তা হলো তাপ আমাদের বা আমাদের শরীরের লোম পোড়াচ্ছে কি না। আমি মনে করি এখনো আমাদের অবস্থা সেই পর্যায়ে পৌঁছায়নি।”

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র সম্পূর্ণরূপে দ্বিপক্ষীয় চুক্তির আওতায় বাস্তবায়িত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “করোনা মহামারির কারণে বিশ্বে লকডাউনের সময়েও এ প্রকল্পের যন্ত্রপাতি, মেশিনারিজ ও জনবল এয়ারওয়ে দিয়ে আনা হয়েছিল। সুতরাং, এই জিনিসগুলো এখন আনা যাবে না এমন কোনো কারণ নেই।”

তিনি বলেন, “যদি ইউক্রেনে যুদ্ধ দীর্ঘস্থায়ী হয় তবে বিশেষজ্ঞ এবং বিজ্ঞ ব্যক্তিরা মূল্যায়ন করতে পারবেন যে, প্রকল্পটিতে যুদ্ধের কোনো প্রভাব পড়বে কি না।”

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে যুদ্ধের প্রভাব সম্পর্কে অপর এক প্রশ্নের জবাবে অর্থনীতিতে এখনো যুদ্ধের প্রভাব দেখতে পাচ্ছেন না বলে জানিয়ে তিনি বলেন, “আমার পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী আমাদের দেশে এখনও যুদ্ধের কোনো প্রভাব পড়েনি। তবে আগামী দিনের কথা বলতে পারব না। অবশ্যই ইউক্রেন যুদ্ধের উত্তাপ আছে। কিন্তু আমাদের অর্থনীতি এখনো এ কারণে কোনো সমস্যায় পড়েনি।”

XS
SM
MD
LG