অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনীয়দের সাময়িক সুরক্ষা দিচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন 


ইউক্রেনের শরণার্থীরা পোল্যান্ডে প্রবেশ করছেন, ২৫শে ফেব্রুয়ারী, ২০২২/এপি

রাশিয়ার আগ্রাসনের পর থেকে ২৮ লাখেরও বেশি মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এটিই উদ্বাস্তুদের দ্রুততম গণপ্রস্থান।

ইউক্রেনীয়রা ইতোমধ্যেই ৯০ দিন পর্যন্ত ইউরোপীয়ান ইউনিয়নে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুবিধা পেয়ে আসছিল। আক্রমণের পর থেকে পরিস্থিতি এবং দেশত্যাগীদের সংখ্যা দ্রুত বদলাচ্ছে। সে কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নির্বাহী শাখা ইউরোপীয় কমিশন অস্থায়ী সুরক্ষা নির্দেশিকা (টিপিডি) চালু করেছে। টিপিডি শিক্ষা,চিকিৎসা পরিষেবা ও কাজের সুযোগ প্রদানের ক্ষেত্রে যুদ্ধ থেকে পালিয়ে আসা ব্যক্তিদের তাত্ক্ষণিক সুরক্ষা দিচ্ছে।

টিপিডির নীতিমালা অনুসারে ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের সাময়িকভাবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে বসবাস ও কাজের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে রাশিয়ার আক্রমণের প্রথম দিন অর্থাৎ ২৪ ফেব্রুয়ারির পরে ইউক্রেন থেকে পালিয়ে আসারা লোকজনেরাই কেবল টিপিডির অধীনে সুরক্ষা পাবে।

ইউক্রেন থেকে আসা শরণার্থীদের অন্তত এক বছরের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নে অস্থায়ী বসবাসের অনুমতি দেয়া হবে। এ মেয়াদ আরও দু বছর বাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

ইউক্রেনের নাগরিক নন এমন তৃতীয় কোনো দেশের নাগরিক এবং রাষ্ট্রবিহীন ব্যক্তিরা এবং তাদের পরিবারের সদস্যরাও টিপিডির অধীনে সুরক্ষিত থাকবে যদি তারা প্রমাণ করতে পারে যে, তারা ইউক্রেনে বৈধভাবে বসবাস করেছে এবং তারা নিজেদের দেশে ফিরতে পারবে না।

ইউরোপীয় কমিশনের ওয়েবসাইট অনুসারে, আন্তর্জাতিক সুরক্ষার জন্য আবেদন করার অধিকারও অস্থায়ী সুরক্ষার অধিকারের মধ্যে পড়ে। সুতরাং, টিপিডি-এর অধীনে সুরক্ষিত থাকা অবস্থায় আশ্রয়ের জন্য আবেদন করা যাবে।

XS
SM
MD
LG