অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নিপীড়নের কারণে চীনা কর্মকর্তাদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র


সেক্রেটারি অফ স্টেট অ্যান্টনি ব্লিংকেন ওয়াশিংটনে ইউনাইটেড স্টেটস হলোকাস্ট মেমোরিয়াল মিউজিয়ামে “বার্মাস পাথ টু জেনোসাইড” প্রদর্শনী দেখার পর বক্তব্য রাখছেন। ২১ মার্চ,২০২২।ফব (ছবি- এপি)

সোমবার বাইডেন প্রশাসন জাতিগত ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের দমন করার অভিযোগে চীনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিদ্যমান যুক্তরাষ্ট্রের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়েছে।

স্টেট ডিপার্টমেন্ট জানায়, তারা চীন ও চীনের বাইরে বাকস্বাধীনতা ও ধর্মের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কারণে তাদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কোন কোন কর্মকর্তা নিষেধাজ্ঞার অধীনে থাকবে এবং এ নিষেধাজ্ঞার ফলে কতজন প্রভাবিত হবে তা স্টেট ডিপার্টমেন্ট জানায়নি।

ভিসা বিধিনিষেধের এ পদক্ষেপটি ছিল মূলত ট্রাম্প প্রশাসনের নেয়া। মূলত জিনজিয়াং-এর পশ্চিম অঞ্চলে উইঘুর মুসলিমদের সাথে চীনের আচরণের পাশাপাশি হংকং-এ গণতন্ত্রপন্থী কর্মীদের দমন ও তিব্বতের স্বাধীনতা সমর্থনকারীদের ওপর চীনের নিপীড়নের কারণে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়।

মাত্র গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ দেশটিতে বসবাসরত চীনা ভিন্নমতাবলম্বীদের হয়রানি করার জন্য নির্লজ্জ ও ব্যাপক স্কিমে চীনা সরকারের পক্ষে কাজ করার অভিযোগে ৫জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করে।

ব্রুকলিনের ফেডারেল আদালতে দায়ের করা ফৌজদারি মামলাগুলোতে ভিন্নমতালম্বীদের ক্ষতি করার,তাদের ভয় দেখানো ও তাদের বক্তব্য বন্ধ করার দীর্ঘমেয়াদী প্রচেষ্টার অভিযোগ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ এই প্রথমবার এ ধরনের আচরণের অভিযোগ আনেনি। ২০২০ সালে নিউ জার্সির এক ব্যক্তিকে বেইজিং-এর ইচ্ছানুযায়ী চীনে বিচারের জন্য ফেরত যেতে বাধ্য করার উদ্দেশে চাপ তৈরির অভিযোগে প্রসিকিউটররা ৮জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিল।

XS
SM
MD
LG