অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পানি সংরক্ষণে সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করুন—প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


বিশ্ব পানি দিবস (২০২২) উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশ সরকার ভূপৃষ্ঠের পানির যথাযথ ব্যবহার এবং ভূগর্ভ থেকে পানি উত্তোলন কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “পানির আরেক নাম জীবন। আমরা ভূ-পৃষ্ঠের পানির ব্যবহার বাড়ানো এবং ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছি। সবাইকে এই বিষয়টির দিকে নজর দিতে হবে”।

সোমবার (৪ এপ্রিল) বিশ্ব পানি দিবস (২০২২) উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় রাজধানী ঢাকার গ্রিন রোডের পানি ভবনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এবং প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এবারের বিশ্ব পানি দিবসের প্রতিপাদ্য “ভূগর্ভস্থ পানি: অদৃশ্য সম্পদ, দৃশ্যমান প্রভাব”।

শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্বে দুই বিলিয়ন মানুষ নিরাপদ পানীয় জলের সমস্যায় ভুগছে।…যদি আমরা এই সম্পদকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারি তাহলে আমাদের দেশের মানুষের কোনো দুর্ভোগ থাকবে না এবং আমরা বিশ্বে নিরাপদ পানি সরবরাহ করতে পারব। এটা মাথায় রেখেই আমাদের কাজ করতে হবে”।

তিনি বলেন, “সরকার ইতিমধ্যে নদী থেকে পানি পরিশোধন করে সরবরাহ শুরু করেছে। এমনকি জেলা পর্যায়েও ভূগর্ভস্থ পানি সংরক্ষণের জন্য সরকার নদী থেকে পানি পরিশোধন করে সরবরাহ করছে।…আমরা ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার সীমিত করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি”।

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা উল্লেখ করেন যে, সরকার ড্রেজিংয়ের ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে যা শুধু নাব্যতাই বাড়াবে না, নৌপথও মসৃণ করবে।

এ সময় তিনি কোনো উন্নয়ন প্রকল্পে পানি প্রবাহে যাতে কোনো বাধা না থাকে তা নিশ্চিত করতে বলেন। তিনি বলেন, “বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ ও ব্যবহারে আমাদের বিশেষ জোর দিতে হবে”।

শেখ হাসিনা বলেন, “ভূগর্ভস্থ পানির মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার করলে দেশে ভূমিকম্পের ঝুঁকি বাড়বে।…অপরিকল্পিত ও নির্বিচারে বাঁধ নির্মাণে বাধা দিতে হবে।…বন্যার মৌসুমে পানি সংরক্ষণের ক্ষমতা বজায় রাখতে হবে। বন্যার সঙ্গে আমাদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে, বন্যার সঙ্গে বাঁচার প্রক্রিয়া শিখতে হবে”।

তিনি সরবরাহকৃত পানি ব্যবহারে মিতব্যয়িতা বজায় রাখতে এবং যেকোনো কাজে পানির অপব্যবহার বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, “এই অমূল্য সম্পদকে বাঁচাতে এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য তা সংরক্ষণ করতে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে”।

XS
SM
MD
LG