অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পুলিশ দ্বারা সাংবাদিক আটকের ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছে মালাউই সরকার


গন্ডওয়ে বলেছেন, পুলিশ তার ফোন এবং কম্পিউটার থেকে যে ব্যক্তিগত তথ্যে নিয়েছে তা তারা অপব্যবহার করবেন বলে আশঙ্কা করছেন (ছবি: গ্রেগরি গন্ডওয়ের সৌজন্যে)

মালাউইর পুলিশ এক সাংবাদিককে আটক এবং তার থেকে জোর করে সরকারি দুর্নীতির একটি প্রতিবেদনের সূত্র প্রকাশ করতে বাধ্য করার চেষ্টা করার জন্য মালাউইর এটর্নি জেনারেল ক্ষমা চেয়েছেন। জনসাধারণের কাছে ক্ষমা প্রার্থনার এই বিরল ঘটনা ঘটে মালাউই সরকার সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার প্রবক্তাদের এবং মালাউইতে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটিশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে সমালোচনা মুখোমুখি হওয়ার পরে।

মালাউইর মিডিয়া ইন্সটিটিউট ফর সাউদার্ন আফ্রিকা, মিসা-মালাউই জানিয়েছে, অ্যাটর্নি জেনারেল থাবো চকাকা-নাইরেন্ডা বুধবার রাজধানী লিলংওয়েতে তার কার্যালয়ে এক বৈঠকের সময় ক্ষমা চান।

মিসা-মালাউই হচ্ছে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা বিষয়ক একটি নজরদারি গোষ্ঠী এবং তার সভাপতি টেরেসা নাডাঙ্গা ।

নাডাঙ্গা বলেন, “ঐ বৈঠকে অ্যাটর্নি জেনারেল ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তিনি ওই সাংবাদিকের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি মিসার কাছেও ক্ষমা চেয়েছিলেন এবং তিনি মালাউইর সংবাদ মাধ্যমের কাছে ক্ষমা চেয়েছিলেন এবং তিনি স্বীকার করেন যে ঐ গ্রেপ্তারটি সঠিক ছিল না।

মঙ্গলবার পুলিশ প্ল্যাটফর্ম ফর ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজমের কর্মী সাংবাদিক গ্রেগরি গন্ডওয়েকে গ্রেপ্তার করে। অ্যাটর্নি জেনারেল চাকাকা নাইরেন্ডা বলেছিলেন যে নথিপত্র যারা ফাঁস করেছে তিনি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। ঐ নথিটি গন্ডওয়ে তার প্রতিবেদনে ব্যবহার করেছিলেন। ৩০শে মার্চ ঐ প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়।

সরকারি নথিতে নাইরেন্ডা সরকারকে সন্দেহভাজন দুর্নীতিগ্রস্থ জুনেথ সাত্তারকে অর্থ প্রদানের অনুমতি দিতে দেখা যায়।

XS
SM
MD
LG