অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই বিপদে বাংলাদেশ


বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম গিবেরহাতে সেন্ট জর্জ পার্কে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিতীয় টেস্ট ক্রিকেট ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার ডুয়ান অলিভিয়ারের বল এড়িয়ে যাবার জন্য মাথা সরিয়েছেন। (ছবি-মার্কোর লঙ্গারি/এএফপি)

পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই বিপদে পড়ে গেছে বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার ৪৫৩ রানের জবাবে দিনের শেষ সেশনে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৩৯ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসেছে বাংলাদেশ। প্রোটিয়াদের সংগ্রহ থেকে বাংলাদেশ এখনো পিছিয়ে আছে ৩১৪ রানে। ফলোঅন এড়াতেই এখনো প্রয়োজন ১১৫।

শুক্রবার (৮ এপ্রিল) দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম দিন শেষ করেছিল ৫ উইকেটে ২৭৮ রান নিয়ে। রবিবার দ্বিতীয় দিন দুই সেশন ব্যাট করে বাকি ৫ উইকেটে আরও ১৫৩ রান যোগ করে তারা।

দলের রান ৩০০ হতেই খালেদ আহমেদের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন কাইল ভেরেইনা। তিনি করেছিলেন ২২। তবে রবিবার ব্যাট হাতে বাংলাদেশি বোলারদের পরীক্ষা নিয়েছেন কেশব মহারাজ। তিনি ৯৫ বলে ৯ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ৮৪ রান করেন।

আগের দিন ভেরেইনারের সঙ্গে অপরাজিত থাকা উইয়ান মুল্ডার করেন ৩৩। এমনকি শেষের দিকে সাইমন হারমার আর লিজাড উইলিয়ামসও রান করেছেন। হারমার ২৯ আর উইলিয়ামস ১৩ রান করলে দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হওয়ার আগে স্কোরবোর্ড তোলে ৪৫৩ রানের বড় সংগ্রহ।

বাংলাদেশের সেরা বোলার তাইজুল ইসলামই। তিনি তার টেস্ট ক্যারিয়ারে আরও একবার ৫ উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়েছেন। ১৩৫ রান দিয়ে তাইজুলের শিকার ৬ উইকেট। পেসার খালেদ আহমেদ ১০০ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। মেহেদী হাসান মিরাজ ১ উইকেট পেলেও ইবাদত ছিলেন উইকেটশূন্য।

চা বিরতির পর ব্যাটিংয়ে নেমে যে ধরনের ব্যাটিং দরকার ছিল, বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা তেমনটা করতে পারেননি। সূচনাটাই ছিল বাজে। স্কোরবোর্ডে ৩ রান উঠতে না উঠতেই বাংলাদেশ হারায় ডারবানের সেঞ্চুরিয়ান মাহমুদুল হাসানকে। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তামিম ইকবাল আর নাজমুল হোসেন ১২০ বলে ৭৯ রান যোগ করে দলকে কিছুটা স্বস্তি দিয়েছিলেন। কিন্তু তামিম মুল্ডারের বলে ৪৭ রান করে এলবিডব্লিউ হন।

১১ মাস পর টেস্ট খেলতে নামা তামিমের ইনিংসটি ছিল বেশ দর্শনীয়। কিন্তু যে সময় তিনি আউট হয়েছেন, সে সময়টা তাকে খুবই দরকার ছিল বাংলাদেশের। তামিম রিভিউও নেননি।

তামিম ফেরার কিছুক্ষণের মধেই ৩৩ রান করা নাজমুল হোসেনকে ফেরান ওই মুল্ডারই। আউট হওয়ার আগের কয়েকটি বল মুল্ডার অফ স্টাম্পের বাইরের দিকে করেছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই ভেতরে ঢোকা ওই বলটিতে নাজমুল কিছুটা বিভ্রান্ত হন। বলটি লাগে তার পায়ে। দক্ষিণ আফ্রিকানদের এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলেও মুল্ডার রিভিউ নিয়ে সফল হন।

এরপর বিপর্যয়। অধিনায়ক মুমিনুল হক দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে আরও একবার ব্যর্থ। তিনি ২৪ বলে ৬ রান করে মুল্ডারের বলেই এলবিডব্লিউ হন। লিটন দাসও নেমে টিকতে পারেননি। তিনি ১৪ বলে ১১ রান করে ডুয়ানে অলিভিয়েরের বলে বোল্ড হন।

এখন বাংলাদেশের “ভরসা” হয়ে আছেন মুশফিকুর রহিম। অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান দিনটা পার করেছেন ভালোভাবেই। ৫৫ বলে ৫টি চারে ৩০ করে অপরাজিত তিনি। তার সঙ্গে আছেন ইয়াসির আলী। তিনি করেছেন ২০ বলে ৮।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৩ উইকেট মুল্ডারের, ২ উইকেট অলিভিয়েরের।

XS
SM
MD
LG