অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

প্রধান আইনজীবীকে অপসারণে মামলা পরিচালনা করবেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জুমা


পিটারমারিটজবার্গের উচ্চ আদালতে উপস্থিত দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জুমা

একটি অস্ত্র চুক্তি দুর্নীতির মামলায় ব্যর্থ আইনি লড়াইয়ের পর দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা প্রধান আইনজীবীকে অপসারণের জন্য ব্যক্তিগত আইনি প্রক্রিয়া শুরু করতে যাচ্ছেন। রবিবার (১০ এপ্রিল) তার ফাউন্ডেশন থেকে এ কথা জানানো হয়।

গত মাসে অন্য অভিযোগের পাশাপাশি জাতীয় আইনি বিধি লঙ্ঘন করে পক্ষপাতিত্বের মাধ্যমে একজন সাংবাদিকের কাছে গোপন তথ্য ফাঁস করার অভিযোয আনার পর প্রধান প্রসিকিউটর বিলি ডাউনারকে মামলাটি থেকে সরিয়ে দিতে জুমার সর্বশেষ আবেদনটি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ বাতিল করে দেন।

আপিল শুনানির জন্য কোনো যুক্তিযুক্ত কারণ না থাকা এবং সফলতার সম্ভাবনা না থাকায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ আপিলের আবেদন খারিজ করে দেন।

জ্যাকব জুমা ফাউন্ডেশনের মুখপাত্র, মাজওয়ানেলে মানি এক সংবাদ সন্মেলনে জানান, জুমা তার আইনি দলকে ব্যক্তিগত আইনি লড়াইয়ের নির্দেশনা দেওয়ায় “আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই তা কার্যকর করা হবে”।

তিনি আরও বলেন, জুমার আইনি দল সুপ্রিম কোর্টের সভাপতির কাছে আপিল শুনানির আবেদন পুনর্বিবেচনার একটি আবেদন দাখিল করেছে।

প্রায় দুই দশক প্রেসিডেন্ট থাকার পর ২০১৮ সালে ক্ষমতাসীন আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস থেকে ক্ষমতাচ্যুত জুমার বিরুদ্ধে, ৯০–এর দশকে ২ বিলিয়ন (২০০ কোটি) ডলারের অস্ত্র চুক্তি, দুর্নীতি ও অর্থ পাচারের অভিযোগ দায়ের করা হয়। এই মামলায় দোষী নন বলে আবেদন করেন তিনি।

দেশটির ডেপুটি প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় ২০০৫ সালে বরখাস্ত হওয়ার পর থেকে অস্ত্র চুক্তির এই মামলায় আটকে আছেন জুমা। তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়েছেন বলে মন্তব্য করেন।

দীর্ঘ বিলম্বিত বিচার প্রক্রিয়া সোমবার শুরু হয়েছে।

মানভি বলেন, জুমা মঙ্গলবার ৮০ বছরে পা রাখবেন মামলাটি স্থগিতের আবেদন করছেন কারণ “এটি খুব পরিস্কার যে এখানে ন্যায্য বিচারের শর্তসমূহ অনুপস্থিত”।

মানভি বলেন, “মহামান্য প্রেসিডেন্ট জুমা সত্যিই চান, আদালতে একটি সুষ্ঠু বিচার হোক। তবে রাষ্ট্র কর্তৃক জালিয়াতি হচ্ছে, এমন কোনো ফোরামে নয়”।

XS
SM
MD
LG