অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফ্রান্সে নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বের ভোটগ্রহণ চলছে, ম্যাঁক্রো ও লা পেন মুখোমুখি


ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলের মার্সেই-এ দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বে এক ব্যক্তি ভোট দিচ্ছে , ২৪ এপ্রিল ২০২২।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বে রবিবার ভোটগ্রহণ চলছে। ভোটে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাঁক্রো এবং কট্টর ডানপন্থী রাজনীতিবিদ মারিন লা পেন।

দ্বিতীয় মেয়াদে পাঁচ বছরের জন্য পুনর্নির্বাচিত হতে এই দফার ভোট দৌড়ে এগিয়ে আছেন ম্যাঁক্রো। তবে, তার জয় নির্ভর করছে গুরুতর এক অনিশ্চয়তার উপর: ভোটাররা ভোট দিতে আসবেন কিনা।

ভোটে ম্যাঁক্রো বিজয়ী হলে গত ২০ বছরে তিনিই দ্বিতীয় মেয়াদে জয়লাভ করা ফ্রান্সের প্রথম প্রেসিডেন্ট হবেন। ইউরোপের ভবিষ্যৎ পথ নির্ধারণ এবং ইউক্রেন যুদ্ধ থামাতে পশ্চিমা প্রচেষ্টায় ম্যাঁক্রোর বিজয় সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলতে পারে।

সাম্প্রতিক সকল জরিপই ৪৪ বছর বয়সী ইউরোপ সমর্থক মধ্যপন্থী এই রাজনীতিবিদের জয়ের প্রতি নির্দেশ করে। তবে, তার ৫৩ বছর বয়সী জাতীয়তাবাদী প্রতিদ্বন্দ্বীর সাথে পার্থক্য বিভিন্ন জরিপে বিভিন্ন রকম পাওয়া গিয়েছে, যা কিনা জরিপের উপর নির্ভর করে ৬ থেকে ১৫ শতাংশ পয়েন্ট পর্যন্ত। জরিপে এও আভাস পাওয়া গিয়েছে যে, এবার রেকর্ড সংখ্যক মানুষ ফাঁকা ভোট দিতে পারেন অথবা ভোট দিতে না আসতে পারেন।

প্রথম পর্বের নির্বাচনে পরাজিত বামপন্থী প্রার্থীর ৭৭ লক্ষ ভোট নিজের দিকে টানতে চেষ্টা করছেন এই পর্বের দুই প্রার্থী। রবিবার সকাল ৮টায় ভোটকেন্দ্র চালু হয়ে বেশিরভাগ স্থানেই সেগুলো সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে কিছু বড় শহর রাত ৮টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

১০ এপ্রিলের প্রথম পর্বে যারা বামপন্থী প্রার্থীকে ভোট দিয়েছিলেন, তাদের অনেকের জন্যই দ্বিতীয় পর্বের দুই প্রার্থীই অসন্তোষজনক। একদিকে রয়েছেন জাতীয়তাবাদী লা পেন, অন্যদিকে বর্তমান প্রেসিডেন্ট যিনি তার মেয়াদকালীন ডানপন্থার দিকে সরে এসেছেন বলে অনেকে মনে করেন। চূড়ান্ত ফলাফল বামপন্থী ভোটারদের সিদ্ধান্তের উপরই নির্ভর করতে পারে, যে তারা কি ম্যাঁক্রোকে সমর্থন করবেন নাকি ভোটদানে বিরত থেকে লা পেনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ম্যাঁক্রোকে একা ছেড়ে দিবেন।

XS
SM
MD
LG