অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনে সর্বসাম্প্রতিক হামলার পর জেলেন্সকি রাশিয়াকে ‘সন্ত্রাসী রাষ্ট্র’ বলেছেন


Tইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি (কেন্দ্রে), ইউক্রেনের কর্মকর্তা আন্দ্রি ইয়ারমাকের পাশে, কিয়েভে একটি বৈঠকের সময় যুক্তরাষ্ট্রের অভিনেতা শন পেনের সাথে কথা বলছেন। (ছবিঃ ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের প্রেস সার্ভিসের প্রকাশিত)। ২৮ জুন, ২০২২।

মঙ্গলবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি রাশিয়াকে একটি “সন্ত্রাসী রাষ্ট্র” বলে অভিহিত করেছেন এবং ক্রেমেনচুক শহরের একটি বিপণী কেন্দ্রে মারাত্নক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার তদন্তের উদ্দেশ্যে একটি কমিশন পাঠানোর জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জেলেন্সকি বলেন, রাশিয়া ইউক্রেনে যেভাবে বেসামরিক মানুষ হত্যা করছে সেভাবে বিশ্বের অন্য কোনো অংশে কোনো গোষ্ঠী হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করলে তারা সন্ত্রাসী হিসেবে বিবেচিত হবে।

মঙ্গলবার জেলেন্সকি তার বক্তব্যের ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে বেশ কয়েকটি নতুন রুশ হামলার তালিকা করেছিলেন। দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর শহর মাইকোলাইভ এবং ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারখিভের কাছে উত্তর-পূর্বাঞ্চলে হামলায় অন্তত ৮ জন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে।নিহতদের মধ্যে ৬ বছর বয়সী এক মেয়েও রয়েছে। অজ্ঞান অবস্থায় থাকা ৩ মাস বয়সী শিশুসহ কয়েক ডজন মানুষ আহত হয় ।

নিরাপত্তা পরিষদে মস্কোর দূত ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে ঐ পরিষদে বক্তব্য রাখার অনুমতি দেয়ার প্রতিবাদ করে বলেছেন, জেলেন্সকি শেষ মুহূর্তে উপস্থিত হয়েছিলেন এবং পরিষদের সকল সদস্যের সাথে পরামর্শ না করেই তার উপস্থিতির ব্যাপারটি সম্পন্ন করা হয়েছে।

উপ-রাষ্ট্রদূত দ্যমিত্রি পলিয়ানস্কি বলেছেন, জেলেন্সকির ভাষণটির উদ্দেশ্য ছিল মাদ্রিদে শুরু হওয়া নেটো সম্মেলনে উপস্থিত সদস্যদের কাছ থেকে সহানুভূতি এবং অস্ত্র অর্জন।

পলিয়ানস্কি ক্রেমেনচুকের বিপণি কেন্দ্রে আঘাত হানার অভিযোগও প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি বলেছেন, এটি রাশিয়ার লক্ষ্যবস্তুর কাছাকাছি ছিল না।

এ প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG