অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বন্যা থেকে বাঁচতে নদী খনন করতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন


সিলেট সদর উপজেলার নয়াবাজারে, বন্যাদুর্গতদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। ৯ জুলাই, ২০২২।

বন্যা থেকে বাঁচতে, বাংলাদেশে নদী খননের প্রয়োজনের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, “বন্যা থেকে বাঁচতে নদীগুলো খনন করতে হবে। অন্যথায় পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা নেই। প্রকৃতিকে অস্বীকার করে চলা যায় না। তাই বন্যা নিয়ন্ত্রণে, পরিকল্পনা করে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।”

শনিবার (৯ জুলাই) সকালে সিলেট সদর উপজেলার নয়াবাজারে, বন্যাদুর্গতদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন বলেন, “দীর্ঘদিন সিলেটে কোন নদী সংস্কার হয়নি, পানি নিস্কাশনের কোন ব্যবস্থা নেই। এক সময় সিলেট শহর দীঘির শহর ছিল, চারপাশে পুকুর ছিল। আজ কিছুই নেই। শুধু বিল্ডিং আর বিল্ডিং। যত জলাশয় ছিল, দখল হয়ে গেছে। সাগরদিঘীতে এক ফুটা পানিও নেই। এসব কারণেই তো এত বড় বন্যা দেখা দিয়েছে।”

“বন্যার সময় আমাদের সফলতা হলো- তড়িৎ গতিতে মানুষকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে। যার ফলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেকটা কমেছে; উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন।

মোমেন বলেন, “বন্যা থেকে মানুষ বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চাইলাম। প্রধানমন্ত্রী নৌকার ব্যবস্থা করে দিলেন। সেনাবাহিনী পাঠিয়ে মানুষকে উদ্ধার করার ব্যবস্থা করলেন। এবারের বন্যায় সিলেটে সরকারের পক্ষ থেকে যা সাহায্য এসেছে, তা আর কখনও আসেনি।”

XS
SM
MD
LG