অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ায় জাতিসংঘের সহায়তা কার্যক্রমের মেয়াদ ৬ মাস বৃদ্ধি পেল


মানবিক সহায়তা দানকারী একটি গাড়ী বহর তুরস্ক থেকে বাব আল-হাওয়া সীমান্ত দিয়ে সিরিয়ায় প্রবেশ করছে। ৮ জুলাই, ২০২২।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের মধ্যে মতবিরোধের কারণে রবিবার অনুমোদনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর, তুরস্ক থেকে উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার বিরোধী-নিয়ন্ত্রিত এলাকায় জাতিসংঘের সাহায্য তৎপরতা আগামী ছয় মাসের জন্য পুনরায় শুরু হতে পারে। এই মেয়াদ ‘এর পর আরো ছয় মাস বৃদ্ধি পাবার সম্ভাবনা আছে।

আয়ারল্যান্ড এবং নরওয়ে পরিষদে সিরিয়া সম্পর্কিত মানবিক বিষয়ে নথিপত্রগুলি তদারকি করে এবং কঠিন বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনার নেতৃত্ব দেয়।

আয়ারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত জেরাল্ডিন বাইর্ন নাসন বলেন, "আজকে যেটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তা হল, এই পরিষদের সিদ্ধান্তের মাধ্যমে যে মানবিক সহায়তা তাদের প্রয়োজন, তা তাদের কাছে পৌঁছানো অব্যাহত থাকবে।"

যদিও সীমান্ত পারাপারের বিষয়টি মানবিক কারণে আরও ছয় মাস খোলা থাকবে, উদ্ভূত ফলাফল মূলত রাশিয়ার জন্য একটি কূটনৈতিক বিজয় ছিল।

মস্কো শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে তার ভেটো ক্ষমতা ব্যবহার ক’রে, এক বছরের জন্য এই তৎপরতা বৃদ্ধি রোধ করে। কাউন্সিলের ১৫টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ১৩টি রাষ্ট্র এর পক্ষে ভোট দিয়েছিল (চীন বিরত ছিল)।

যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন এবং ফ্রান্স সোমবারের ভোটের সময় ভোটদানে বিরত ছিল। কারণ তারা ছয় মাসের জন্য এই মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট ছিল না।

প্রতি মাসে প্রায় ৮০০টি ট্রাক বাব আল-হাওয়া হয়ে বিরোধী-নিয়ন্ত্রিত উত্তর-পশ্চিমে ত্রাণ সরবরাহ করে। আসাদ সরকার দেশে আসা সমস্ত ত্রাণ সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ করতে পছন্দ করে এবং বলে যে আন্তঃসীমান্ত তৎপরতা একটি সাময়িক এবং ব্যতিক্রমী ব্যবস্থা ছিল যার আর প্রয়োজন নেই।

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস ব্যক্তিগতভাবে পরিষদের সদস্যদের কাছে আন্তঃসীমান্ত ব্যবস্থাকে আরও এক বছরের জন্য নবায়নের আবেদন করেছিলেন। অন্য একটি বৈঠকে যাওয়ার পথে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ায় বসবাসকারী মানুষের জন্য ত্রাণ অভিযান অপরিহার্য।

তিনি বলেন, "এটি তাদের অনেকের জন্য জীবন এবং মৃত্যুর বিষয়।" তিনি আশা করেন, জানুয়ারিতে আবারও এই সিদ্ধান্ত নবায়ন করা হবে।

বাব আল-হাওয়া সীমান্ত ক্রসিংয়ে তুরস্কের মধ্য দিয়ে আসা মানবিক সহায়তা থেকে ৪০ লাখেরও বেশি সিরিয়ান উপকৃত হচ্ছে। জাতিসংঘ এবং এর সাহায্য সহযোগীরা প্রতি মাসে খাদ্য ও অন্যান্য সাহায্য নিয়ে উত্তর-পশ্চিমে ২৪ লাখ মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়।

জাতিসংঘ বলছে, ১.৪৬ কোটি সিরীয়দের মানবিক সহায়তা প্রয়োজন, যার মধ্যে ১.২ কোটি মানুষ বর্তমানে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। জাতিসংঘ দেশটির অভ্যন্তরে এবং যারা প্রতিবেশী দেশগুলিতে নিরাপত্তা চেয়েছে, তাদের উভয়কে সহায়তা করার জন্য এই বছর ১০০০ কোটি ডলারের একটি বিস্ময়কর আবেদন করেছে। জাতিসংঘ বলেছে, স্থায়ী যুদ্ধবিরতি কার্যকর না হলে, দুর্ভোগ কিছুতেই লাঘব হবে না।

XS
SM
MD
LG