অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে ২০০ কোটি কোভিড টিকাদান সম্পন্ন, নতুন আক্রান্তের সংখ্যা গত ৪ মাসে সর্বোচ্চ


২০২২ সালের ১৫ জুলাই ভারতের হায়দ্রাবাদের একটি টিকাদান কেন্দ্রে একজন স্বাস্থ্যকর্মী কোভিড-১৯-এর টিকা দিচ্ছেন।

ভারত সরকারের তথ্য অনুযায়ী, এই রবিবার পর্যন্ত তারা প্রায় ২০০ কোটি মানুষকে কোভিড-১৯ টিকা প্রদান সম্পন্ন করেছে। দৈনিক সংক্রমণ চার মাসের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে । প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য বুস্টার ডোজ দেয়া অব্যাহত আছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গত বছর শুরু হওয়া বিশ্বের বৃহত্তম এবং দীর্ঘতম চলমান টিকাদান কর্মসূচির মাইলফলক অর্জনের প্রশংসা করেন।

এক টুইট বার্তায় মোদী বলেন ‘ভারত আবার ইতিহাস সৃষ্টি করছে’, যদিও বিরোধীদের কাছ থেকে এই মহামারীকে ভুলভাবে পরিচালনা করার অভিযোগের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি । বিশেষজ্ঞদের মতে এই মহামারীতে লক্ষ লক্ষ লোক মারা গেছে। সরকার এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এক রাতে সর্বোচ্চ ৪৯ জনের মৃত্যুসহ কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লাখ ২৫ হাজার ৭০৯ জন ।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২০ হাজার ৫২৮ জন, যা গত ২০ ফেব্রুয়ারির পর সর্বোচ্চ।

১৩৫ কোটি জনসংখ্যার এই দেশটি ইতিমধ্যে কোভিড-সম্পর্কিত বেশিরভাগ বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে এবং আন্তর্জাতিক ভ্রমণ দৃঢ়ভাবে আবারও চালু করা হয়েছে।

যত টিকা দেয়া হয়েছে তার মধ্যে ৮০% অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন । অন্যগুলো হচ্ছে দেশীয়ভাবে তৈরি কোভ্যাক্সিন এবং করবেভ্যাক্স এবং রাশিয়ার স্পুটনিক ভি।

ফেডারেল সরকার সংক্রমণের বিস্তার রোধ করার জন্য বুস্টার প্রচারাভিযানকে ত্বরান্বিত করছে। আসাম, পশ্চিমবঙ্গ এবং কর্ণাটকের দিকে আরও বেশি মনোযোগ দেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG