অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পুতিনের কথিত প্রেমিকাসহ কিছু রুশ নাগরিকের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ


প্রাক্তন বিশ্ব এবং অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন রুশ জিমন্যাস্ট আলিনা কাবায়েভা মস্কোর গ্র্যান্ড ক্রেমলিন প্যালেসে পাবলিক চেম্বারের প্রথম বৈঠকের আগে তার আসন গ্রহণ করছেন। ২২ জানুয়ারি, ২০০৬। ফাইল ছবি।

রাশিয়ার অভিজাতদের লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর মধ্যে কিছু ধনকুবের এবং একজন নারী রয়েছেন, যিনি সাবেক অলিম্পিক রিদমিক জিমন্যাস্ট চ্যাম্পিয়ন আলিনা কাবায়েভা- প্রায়শই সংবাদ প্রতিবেদনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রেমিকা এবং তার ৪ সন্তানের মা হিসেবে তার নাম উল্লেখ করা হয়।

ট্রেজারি দপ্তর কাবায়েভা (৩৯)-র ভিসা জব্দ করেছে এবং তার ওপর সম্পত্তি সংক্রান্ত অন্যান্য বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। তিনি রাশিয়ার আইন প্রণয়নকারী সংস্থা ডুমার একজন প্রাক্তন সদস্য এবং তিনি রাশিয়ার একটি জাতীয় গণমাধ্যম কোম্পানির প্রধান। সংস্থাটি ইউক্রেনে মস্কোর আক্রমণের সমর্থনে সংবাদ প্রচার করে থাকে।

ক্রেমলিনের বিরোধীরা এবং পুতিনের সমালোচক আলেক্সি নাভালনি কাবায়েভার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার আহ্বান জানিয়েছেন। তাদের দাবি, কাবায়েভার সংবাদ সংস্থা রুশ আক্রমণের বিষয়ে পশ্চিমা মন্তব্যকে একটি বিভ্রান্তিমূলক প্রচারণা হিসেবে চিত্রিত করার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়েছে।

মে মাসে ব্রিটেন কাবায়েভার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এবং জুনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন তার ওপর ভ্রমণ ও সম্পদ সংক্রান্ত বিধিনিষেধ আরোপ করে।

নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন আন্দ্রে গ্রিগোরিভিচ গুরিয়েভ। তিনি একজন ধনকুবের যিনি উইটানহার্স্ট এস্টেটের মালিক। এস্টেটটি বাকিংহাম প্যালেসের পরে লন্ডনের দ্বিতীয় বৃহত্তম এস্টেট হিসেবে বিবেচিত ২৫ বেডরুমের একটি প্রাসাদ।

যুক্তরাষ্ট্র তার ১২ কোটি ডলারের ইয়ট আলফা নিরোর চলাচলও অবরুদ্ধ করেছে এবং তার ছেলে আন্দ্রেভিচ গুরিয়েভ এবং তার ছেলের রুশ বিনিয়োগ সংস্থা ডিজি এআই ইনভেস্ট ওওও-র ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রক ভিসা সংক্রান্ত অতিরিক্ত বিধিনিষেধ এবং অন্যান্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

XS
SM
MD
LG