অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আল-শাবাবের 'শ্যাডো কোর্ট'-এর বিরুদ্ধে সোমালি সরকারের আসন্ন অভিযান


মোগাদিশুতে কর্তৃপক্ষের কাছে আত্মসমর্পণের পর, সোমালিয়ার সরকারী এক সৈন্যের কথা শুনছে জঙ্গি গোষ্ঠী আল-শাবাবের সদস্যরা৷ ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১২ (ফাইল)

এই সপ্তাহে ইসলামপন্থী জঙ্গি গোষ্ঠী আল-শাবাব দ্বারা পরিচালিত তথাকথিত ছায়া আদালতের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে সোমালিয়ার সরকার। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বীকার করেছেন, সোমালিয়ার আইনি ব্যবস্থা খুবই দুর্বল হওয়ায়, অনেক সোমালিই বিচারের জন্য জঙ্গিদের কাছে যায়। তবে সোমালিয়া বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ছায়া আদালত বন্ধ করা মোটেও সহজ কাজ হবে না।

সোমালিয়ার নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমেদ মোয়ালিম ফিকি এই সপ্তাহে বলেছেন, রাজধানী মোগাদিশু এবং এর আশেপাশে আল-শাবাব এর তথাকথিত ছায়া আদালতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরুর পরিকল্পনা করছে দেশটির সরকার।

তিনি বলেন, সরকার আগামী দুই বছরের মধ্যে আল-শাবাবের সমস্ত আদালত বন্ধ করে দেবে।

তিনি বলেন, সরকারী আদালতের সিদ্ধান্তের প্রয়োগের অভাবে কিছু লোক এখনো সন্ত্রাসী আল-শাবাবের আদালতে বিচার চাইতে যায়। তবে, আমরা মোগাদিশুর আশেপাশে বসরা এবং ডেনিয়েল জেলার উপকণ্ঠে অবস্থিত আদালতসহ আল-শাবাবের সমস্ত আদালত বন্ধ করে দেব।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ নামের একটি গবেষণা সংস্থার পূর্ব আফ্রিকার একজন জ্যেষ্ঠ বিশ্লেষক ওমর মাহমুদ ভিওএ-কে বলেন, গ্রুপটি তাদের বিচার খাতে ব্যাপক বিনিয়োগ করেছে এবং প্রাথমিকভাবে তারা জমিজমা ও চুক্তির বিরোধের উপর তাদের দৃষ্টি নিবদ্ধ রাখছে।

তিনি বলেন, আদালতের কার্যক্রম বন্ধ করা সরকারের জন্য একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ হবে।

ফারসাইট আফ্রিকা রিসার্চ অ্যান্ড পলিসি স্টাডিজের নির্বাহী পরিচালক আবদিরিসাক অ্যাডেন বলেন, আল-শাবাব আদালত বন্ধ করতে সরকারের সদিচ্ছা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।

গত বছর তালিবান আফগানিস্তান দখলের পর থেকে, আল-শাবাব জনগণের আরও সমর্থন পাওয়ার জন্য, সোমালিয়ায় তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন অংশে স্কুল এবং হাসপাতাল তৈরি করেছে বলে জানা গেছে।

কিন্তু, গত ১৫ বছর ধরে সোমালি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করা এই দলটি কিছুতেই হামলা চালানো বন্ধ করেনি।

এই গত মাসেও, আল-শাবাব মারকা এবং জোহর শহরে এক আত্মঘাতী হামলা চালায়। এতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ আরও অন্তত ২৫ জনের প্রাণহানি ঘটে।

XS
SM
MD
LG