অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অগ্নিসংযোগ এবং বোমা হামলায় বিপর্যস্ত থাইল্যান্ডের দক্ষিণ অঞ্চল


থাইল্যান্ডের ইয়ালা শহরে বিস্ফোরণের পর বিধ্বস্ত একটি দোকান। ১৭ অগাস্ট, ২০২২।

থাইল্যান্ডের দক্ষিণে কয়েকটি প্রদেশে রাতভর অগ্নিসংযোগ এবং মুহুর্মুহু বোমা হামলার বেশ কিছু ঘটনা ঘটেছে বলে বুধবার থাইল্যান্ডের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গত প্রায় দুই দশক ধরে সক্রিয় মুসলিম বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিদ্রোহের দৃশ্য ছিল এটি।

সামরিক মুখপাত্র প্রমোত প্রোমিন জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে পাত্তানি, নারাথিওয়াত এবং ইয়ালা প্রদেশে অন্তত ১৭টি হামলা হয়েছে, এসব হামলার বেশিরভাগই মুদী দোকান এবং গ্যাস স্টেশনকে লক্ষ্য করে চালানো হয়েছে। এতে তিনজন বেসামরিক লোক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে এখন পর্যন্ত হামলার দায় স্বীকার করেনি কেউ।

২০০৪ সালে বৌদ্ধ অধ্যুষিত থাইল্যান্ডের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ওই প্রদেশ তিনটিতে বিদ্রোহ শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ৭,৩০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এছাড়া পার্শ্ববর্তী সোংখলা প্রদেশেও হামলার ঘটনা ঘটেছে।

মুসলিম বাসিন্দারা দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ করে আসছেন, তাদের সাথে থাইল্যান্ডে দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিকের মতো আচরণ করা হয় এবং কয়েক দশক ধরে বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন নিয়মিতভাবে সক্রিয় হয়েছে। শক্ত হাতে দমন পীড়ন তাদের অসন্তোষে আরও ইন্ধন জুগিয়েছে।

গত এপ্রিলের গোড়ার দিকের আক্রমণগুলি ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ। থাই সরকার এবং বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় বিআরএন বা বারিসান রেভোলুসি ন্যাশনাল মেলায়ু পাটানির মধ্যে একটি সমঝোতা হয় এবং মুসলিমদের পবিত্র মাস রমজানের সময়কালে তারা সহিংসতা বন্ধ করতে সম্মত হয়৷ তবে এপ্রিলের শেষের দিকেই আবারও সহিংসতার ঘটনা ঘটে। সে সময় একটি বোমার আঘাতে কর্তব্যরত দুই থাই সেনা অস্ত্র বিশেষজ্ঞ নিহত হন।

প্রমোত বলেন, হামলাকারীরা মঙ্গলবার রাতে "নারীদের সাজে, মোটরসাইকেলে করে হামলা চালায়। তাদের কোনো কোনো লক্ষ্যস্থলে তারা পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে।

পুলিশ ক্যাপ্টেন সরায়ুথ কোটচাওং বলেছেন, তিনি মধ্যরাতের কিছু আগে খবর পান যে, ইয়ালার ইয়াহা জেলায় একটি গ্যাস স্টেশনের মুদী দোকানে একজন সন্দেহভাজন ব্যক্তি প্রবেশ করে, ভিতরে একটি কালো ব্যাগ রেখে দেয়। তিনি দোকানের কর্মচারীদের "মরতে না চাইলে" সেখান থেকে চলে যাওয়ার জন্য সতর্ক করেন। এর ১০ মিনিট পরই ব্যাগটি বিস্ফোরিত হওয়ার আগেই কর্মচারীরা সব চলে যায়।

মালয়েশিয়া সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় থাই কর্মকর্তা এবং বেশ কয়েকটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্বকারী একটি সমন্বিত সংগঠন মারা পাটানির মধ্যে শান্তি আলোচনা চলছে। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে, থাই কর্মকর্তারা বিআরএন প্রতিনিধিদের সাথে কয়েক বছরের মধ্যে প্রথম তারা কোনো আনুষ্ঠানিক বৈঠকে মিলিত হয়।

এর আগেও মাঝে মধ্যেই বড় আকারের রক্তপাতের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৯ সালের নভেম্বর, বন্দুকধারীরা হামলা করে ১৫ জন গ্রাম প্রতিরক্ষা স্বেচ্ছাসেবককে হত্যা করে এবং অপর পাঁচজন নিরাপত্তা কর্মী এতে আহত হয়। বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহ শুরু হওয়ার পর থেকে সরকারী বাহিনীর উপর ওই হামলাকে সবচেয়ে মারাত্মক বলে মনে করা হয়।

XS
SM
MD
LG