অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনের সৈন্যরা বলছে তারা রুশ সৈন্য নয় বরং রুশ বন্দিদের বিরুদ্ধে লড়ছে


রাশিয়ার রসটভ-অন-ডন এ চুক্তিভিত্তিক সামরিক চাকরির জন্য স্থাপিত এক অস্থায়ী নিয়োগ কেন্দ্রের পাশে রুশ সেনাসদস্যরা দাঁড়িয়ে আছেন, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২। (ফাইল ফটো)

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের বাখমুত শহরে অবস্থিত ইউক্রেনের সামরিক সদস্যরা বলছেন যে তাদের ধারণা তারা রুশ সৈন্যের পরিবর্তে রুশ বন্দিদের সাথে লড়াই করছেন।

প্রকাশনাটিতে বলা হয়, তারা অনলাইনে প্রকাশিত একটি ভিডিও বিশ্লেষণ করেছেন, যেই ভিডিও দেখে আপাতদৃষ্টিতে মনে হয়েছে যে দ্য ওয়্যাগনার গ্রুপ নামের একটি বেসরকারি সামরিক কোম্পানীর প্রতিনিধিরা বন্দিদের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন যে, তারা ইউক্রেনে ছয়মাস যুদ্ধ করলে তাদের মুক্তি দেওয়া হবে। তবে, দ্য টাইমস জানায় যে ভিডিওটি যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে, বাখমুত দখল করা ইউক্রেনে তাদের আক্রমণের মূল উদ্দেশ্যগুলোর একটি।

এদিকে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেনে গণবিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধে আবারও পুতিনকে সতর্ক করেছেন।

সিবিএস নিউজ-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাইডেন বলেন, “করবেন না। করবেন না। করবেন না। আপনি এমনভাবে যুদ্ধের চেহারা পাল্টে দিবেন যেমনটা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে আর হয়নি।” সাক্ষাৎকারটি রবিবার রাতে সম্প্রচারিত হওয়ার কথা রয়েছে।

রাশিয়া ইউক্রেনে রাসায়নিক বা পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করলে, তাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিক্রিয়া নিয়ে বাইডেন নির্দিষ্ট করে কোন মন্তব্য করেননি।

তিনি বলেন, “তারা বিশ্বে এমন অবাঞ্চিত হয়ে যাবে যেমনটা তারা কখনোই ছিল না। এবং তারা যা্ করবে সেটির ব্যাপ্তিই নির্ধারণ করবে যে কি প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।”

এটিই পুতিনের প্রতি বাইডেনের প্রথম সতর্কবার্তা ছিল না: মার্চ মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং জি-সেভেন সহযোগী ও নেটো মিত্রদের সাথে বৈঠকের পর, বাইডেন বলেছিলেন যে, ইউক্রেনে গণবিধ্বংসী অস্ত্রের যে কোন ধরণের ব্যবহারে নেটো “সমভাবে” প্রতিক্রিয়া জানাবে।

পুতিনকে উল্লেখ করে বাইডেন বলেছিলেন, “তিনি সেটি ব্যবহার করলে আমরা সাড়া দেব। [আমাদের] প্রতিক্রিয়ার প্রকৃতি [তাদের অস্ত্র] ব্যবহারের প্রকৃতির উপর নির্ভর করবে।”

XS
SM
MD
LG