অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

স্বর্ণ চোরাচালান মামলা: চট্টগ্রামে চীনা নাগরিকের সাতবছর কারাদণ্ড


স্বর্ণ চোরাচালান মামলা: চট্টগ্রামে চীনা নাগরিকের সাতবছর কারাদণ্ড।

বাংলাদেশের চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় এক চীনা নাগরিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

নগরীর পতেঙ্গা থানার একটি মামলায়, রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ ড. বেগম জেবুননেছা বেগমের আদালত এ রায় দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ফ্যান রংগুই, চীনের জিং ওয়েস্ট আরডি বিয়াং জেলার ফ্যান উই ঝাংয়ের ছেলে। তার পাসপোর্ট নম্বর ইএ ১৭২৪৩৪৮।

চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, “চীনা নাগরিক ফ্যান রংগুইয়েরর বিরুদ্ধে, স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণ করতে পারায় কারাদণ্ডের এই রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় ফ্যান রংগুই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।”

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৯ সালের ৮ মে বিজি-১৪৮ ফ্লাইটে দুবাই থেকে চট্টগ্রামের হজরত শাহ আমানত (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সকাল সোয়া ৭টার দিকে অবতরণ করেন ফ্যান রংগুই। এ সময় তার পণ্যসামগ্রী স্ক্যানিংয়ের সময়, চার্জার লাইটে নিষিদ্ধ ধাতব পদার্থ আছে বলে সন্দেহ হয় কাস্টমসের কর্মকর্তাদের। এরপর তাকে চ্যালেঞ্জ করা হয়। একপর্যায়ে লাইট ভেঙে ২৪ পিস স্বর্ণের বার পাওয়া যায়। এগুলোর ওজন প্রায় ২৪০ তোলা বা ২ কেজি ৮০০ গ্রাম।আনুমানিক বাজার মূল্য এক কোটি ২০ লাখ টাকা।

এ ঘটনায় ঐ দিন শাহ আমানত (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কাস্টম হাউসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা শাহারিয়ার হোসেন বাদী হয়ে, পতেঙ্গা থানায় মামলা করেন। এ মামলায় ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ফ্যান রংগুইকে একমাত্র অভিযুক্ত উল্লেখ করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পতেঙ্গা থানা পুলিশ। এরপর, ২০২১ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ৯ জনের সাক্ষ্য উপস্থাপন করে আদালতে।

XS
SM
MD
LG