অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রেমিটেন্সের জন্য ১ অক্টোবর থেকে ডলার প্রতি বিনিময় হার হবে ১০৭.৫ টাকা


ইউএস ডলার - ফাইল ফটো -রয়টার্স

প্রবাসী বাংলাদেশিরা ১ অক্টোবর থেকে রেমিটেন্সের জন্য প্রতি ডলার ১০৮ টাকার পরিবর্তে, সর্বোচ্চ ১০৭ দশমিক ৫ টাকা পাবেন। অ্যাসোসিয়েশন অফ ব্যাংকার্স, বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) বৈদেশিক মুদ্রার বাজার স্থিতিশীল করতে, অক্টোবরের জন্য রেমিটেন্সের এই হার নির্ধারণ করেছে।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, বিনিময় হার নিয়ন্ত্রণ করা হলে, বর্তমান রেমিটেন্স প্রবাহে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। অর্থনীতিবিদ ও পিআরআই-এর চেয়ারম্যান আহসান এইচ মনসুর বলেন, “যখন খোলা বাজারে প্রতি ডলারের দাম ১১৪ টাকার বেশি হয়, তখন আরও রেমিটেন্স আকর্ষণ করার জন্য এটি সঠিক সিদ্ধান্ত নয়।”

তিনি বলেন, “এ সিদ্ধান্ত অবৈধ চ্যানেলের মাধ্যমে অর্থ পাঠানো উৎসাহিত করতে পারে। যার ফলে এটি বৈদেশিক মুদ্রা বাজারের সংকট সমাধানে কোনো সহায়তা করবে না।”

সিপিডি-এর বিশিষ্ট ফেলো অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, “যখন বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে চাহিদা বাড়তে থাকে, তখন বিনিময় হার নিয়ন্ত্রণ করা সহায়ক নয়। ডলারের বিভিন্ন দাম বাজারে অসঙ্গতি সৃষ্টি করবে এবং রেমিটেন্স প্রবাহ নিরুৎসাহিত করবে।”

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রেরকরা প্রতি ডলার সর্বোচ্চ ১০৭ দশমিক ৫ টাকা পাবেন। এর আগে ১১ সেপ্টেম্বর, এবিবি ও বাফেদা রেমিটেন্সের জন্য প্রতি ডলারের সর্বোচ্চ মূল্য ১০৮ টাকা নির্ধারণ করেছিল।

তবে, রপ্তানি আয় নগদীকরণ করতে, ডলারের হার আগের মতোই থাকবে প্রতি ডলার ৯৯ টাকা। আমদানি দায় পরিশোধ এবং আন্তঃব্যাংক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডলারের মূল্য প্রবাসী ও রপ্তানি আয় থেকে কেনা ডলারের গড় মূল্যের চেয়ে ১ টাকা বেশি হবে।

বৈঠক শেষে বাফেদা’র চেয়ারম্যান আফজাল করিম সাংবাদিকদের বলেন, “ডলারের বাজার স্বাভাবিক রাখতে, সময়ে সময়ে মূল্য পর্যালোচনা করার কথা ছিল। সেই ধারাবাহিকতায়, আমরা নতুন দাম নির্ধারণ করেছি। নতুন দাম ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে।”

XS
SM
MD
LG