অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফ্রান্সের আনি এর্নো সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেলেন


ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলের কান-এ অনুষ্ঠিত ৭৫তম কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে “লে অ্যানি সুপার এইট (সুপার ৮টি বছর)” নামের চলচ্চিত্রটির প্রদর্শনীতে উপস্থিত ফ্রান্সের লেখিকা আনি এর্নো। (ফাইল ফটো)

দ্য সুইডিশ একাডেমি বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের লেখিকা আনি এর্নো-কে ২০২২ সালের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার দেন। তার “সাহসিকতা এবং তিনি যেই তীক্ষ্ণতার সাথে ব্যক্তিগত স্মৃতির শেকড়, বিচ্ছিন্নতা ও সামগ্রিক সীমাবদ্ধতাগুলো উন্মোচন করেছেন” সেই জন্য তাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

স্টকহোমে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেয় একাডেমি।

৮২ বছর বয়সী এর্নো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তার আত্মজীবনীমূলক লেখার জন্য ‍সুপরিচিত। তিনি ২০টিরও বেশি বই লিখেছেন। বইগুলো কল্পকাহিনী ও স্মৃতিকথা, উভয় ধরণের। সেগুলো তার নিজের জীবন এবং অনেক সময় তার অত্যন্ত ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার উপর ভিত্তি করে লেখা। তিনি নোবেল পুরষ্কার প্রাপ্তিকে "বিশাল সন্মান" এবং "দায়িত্ব" বলে অভিহিত করেন।

তার সর্বসাম্প্রতিক বইটি হল “গেটিং লস্ট”, যা গত মাসে প্রকাশিত হয়েছে। বইটি ১৯৮৮ থেকে আরম্ভ করে ১৯৯০ এর শেষ পর্যন্ত ডাইরিতে ধারাবাহিক কতগুলো লেখার সংকলন এবং সেটিতে তার একাধিক প্রেমের ঘটনার ব্যক্তিগত তথ্যের বিস্তারিত রয়েছে।

এর্নো ফ্রান্সের ১৬তম ব্যক্তি যিনি সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেলেন, যা অন্য যে কোন দেশের চাইতে অন্তত তিনজন বেশি।

এই সম্মাননায় ৯০০,০০০ ডলারের চাইতেও বেশি নগদ পুরস্কার রয়েছে, যা সকল পুরস্কার বিজয়ীদের মধ্যে সমান ভাগ করে দেওয়া হয়।

এই সপ্তাহে এর আগে চিকিৎসাবিজ্ঞান, পদার্থবিদ্যা ও রসায়নের পুরস্কারগুলো দেওয়া হয়। শুক্রবার নোবেল শান্তি পুরস্কার এবং সোমবার অর্থনীতির পুরস্কারটি ঘোষণা দেওয়ার কথা রয়েছে।

XS
SM
MD
LG