অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চূড়ান্ত পর্বে লুলা দা সিলভা জয়ী


ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের শেষ পর্বের দিন সন্ধ্যায় ব্রাজিলের সাও পাওলো-তে এক সমাবেশে উপস্থিত লুইজ ইনাসিও লুলা দা সিলভা, ৩০ অক্টোবর ২০২২।

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের শেষ পর্বে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারো-কে হারিয়ে ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাসিও লুলা দা সিলভা বিজয়ী হয়েছেন।

দা সিলভা ৫০.৯% ভোট পেয়েছেন। ৯৯.৯% ভোট গণনা শেষ হয়েছে। নির্বাচন কর্মকর্তারা বলেন যে, লুলার বিজয় গাণিতিকভাবে নিশ্চিত।

চরম ডানপন্থী বোলসোনারো রবিবার পরাজয় স্বীকার করেননি। তবে, এই পর্বের নির্বাচনের একদিন আগে তিনি বলেছিলেন, “বিন্দুমাত্র সন্দেহও নেই। যেই বেশি ভোট পাবে, সেই [নির্বাচনে] জিতবে।”

বিগত মেয়াদে প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ব্রাজিলের লক্ষ লক্ষ মানুষকে দরিদ্রতা থেকে তুলে আনার জন্য দা সিলভা সুপরিচিত। অপরদিকে, বোলসোনারো’র মেয়াদে আলোচ্য বিষয়গুলো ছিল তার চরম ডানপন্থী রাজনীতি, করোনাভাইরাস নিয়ে উপহাস করা, অ্যামাজন জঙ্গলে বন নিধন ও ব্যাপক মূল্যস্ফীতি।

দা সিলভা দেশটির সামাজিক কল্যাণ ব্যবস্থা উন্নত করার এবং দেশটির আদিবাসী জনগোষ্ঠীর উদ্বেগ নিরসনে একটি মন্ত্রক স্থাপনের অঙ্গীকার করেছেন। তবে, ব্রাজিলের কংগ্রেসে রক্ষণশীলরা ঢুকে পড়ায় তেমন অঙ্গীকার রক্ষা করা দুষ্কর হতে পারে।

৭৭ বছর বয়সী দা সিলভার বিজয় সাবেক এই প্রেসিডেন্টের জন্য এক আশ্চর্য ঘটনা। দা সিলভা ২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত দেশটির নেতৃত্ব দেন। পরবর্তীতে দুর্নীতির অভিযোগে তিনি ১৮ মাস কারাবাস ভোগ করেন। তবে সেই অভিযোগগুলো পরবর্তীতে সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করে দেয়।

“স্বাধীন, নিরপেক্ষ, ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের” পর বিজয়ী হওয়ায় দা সিলভাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন যে, তিনি “আগামী মাস ও বছরগুলোতে আমাদের দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশা করছেন।”

টুইটারে পোস্ট করা এক অভিনন্দন বার্তায় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাঁক্রো বলেন, এই দুই নেতা “তাদের দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের বন্ধন নবায়ন করবেন”।

XS
SM
MD
LG