অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে অবাধ নির্বাচন করার প্রচেষ্টায় সহযোগিতা করা হবে: আফরিন আক্তার


বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস এবং বাংলাদেশের তিনটি প্রধান রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি আফরিন আক্তার।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি আফরিন আক্তারের দু’দিনের বাংলাদেশ সফর শেষে, ঢাকায় অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানিয়েছে যে বাংলাদেশে অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য, রাজনৈতিক দলসহ সকল অংশগ্রহণকারীর সমান সুযোগ অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। এর আগে, আফরিন আক্তার বলেছিলেন, “বাংলাদেশে অবাধ নির্বাচন করার প্রচেষ্টাকে সহযোগিতা করতে নাগরিক সমাজের সঙ্গে কাজ করা হচ্ছে।”

আফরিন আক্তার এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস বাংলাদেশের তিনটি প্রধান রাজনৈতিক দল; বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল এবং জাতীয় পার্টির প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

ঢাকা ছাড়ার আগে সোমবার (৭ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে ব্রেকফাস্টে যোগ দেন আফরিন আক্তার।

রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে তার বৈঠকের কথা উল্লেখ করে আফরিন আক্তার বলেন, “অবশ্যই একে অপরের প্রতি আস্থা ও শ্রদ্ধা রয়েছে।” তিনি স্বাস্থ্য, জলবায়ু ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সহযোগিতার কথা তুলে ধরেন।

পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, তারা বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন এবং এটি কোনও নির্বাচনকেন্দ্রিক আলোচনা নয়।

আফরিন আক্তার রবিবার (৬ নভেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, “বাংলাদেশে অবাধ নির্বাচন করার প্রচেষ্টাকে সহযোগিতা করতে, আমাদের ইউএসএআইডি মিশন বাংলাদেশের নাগরিক সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।”

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিট) রিয়ার অ্যাডমিরাল (অব.) মো. খুরশেদ আলমের সঙ্গে বৈঠকের সময় যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি আফরিন আক্তার, সামুদ্রিক নিরাপত্তা এবং কিভাবে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে পারে, সে বিষয়ে এবং এই অঞ্চলে সামুদ্রিক সহযোগিতার বিষয়ে বিশদ আলোচনা করেন।

XS
SM
MD
LG