অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শেরপুরে বিএনপি সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষ; ৬ পুলিশ সদস্যসহ আহত ২১, আটক ১৬


বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের সঙ্গে দলটির সমর্থকদের সংঘর্ষ
বাংলাদেশের শেরপুরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে, পুলিশের সঙ্গে দলটির সমর্থকদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে। এ ঘটনায় ছয় পুলিশ সদস্য এবং বিএনপির ১৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। ১৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) বিকালে শেরপুর শহরের রঘুনাথবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের পর শহরের সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে জেলা বিএনপি। মঙ্গলবার বিকাল তিনটার দিকে জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হক রুবেলের বাসা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি জেলা বিএনপির কার্যালয়ে যাওয়ার পথে রঘুনাথবাজার এলাকায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় দাবি করেছে বিএনপি।
পুলিশ বলছে, বিএনপির মিছিল থেকে পুলিশের দিকে ইটপাটকেল ছুঁড়লে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে। সংঘর্ষে ছয় পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ২১ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার পর, বিএনপির ১৬ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হক রুবেলের দাবি, শান্তিপূর্ণভাবে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময়, পুলিশ তাদের ওপর আক্রমণ চালায়। এতে বিএনপির অন্তত ১০০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল জানিয়েছেন, “পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ১৬ জনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ১০১ রাউন্ড শর্টগানের গুলি এবং ২২ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করা হয়েছে।”

XS
SM
MD
LG