অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বকাপের আর্মব্যান্ড বিতর্কের প্রেক্ষিতে জার্মান খেলোয়াড়রা দলীয় ছবিতে মুখ ঢেকেছে


কাতারের খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে জার্মানি এবং জাপানের মধ্যে গ্রুপ ই ফুটবল ম্যাচের আগে জার্মানির খেলোয়াড়রা তাদের মুখ ঢেকে রেখেছে। ২৩ নভেম্বর, ২০২২।

“ওয়ান লাভ” আর্মব্যান্ডের ওপর ফিফার নিষেধাজ্ঞার হুমকির বিষয়ে বিরোধ অব্যাহত থাকায় বুধবার বিশ্বকাপ গ্রুপ-এ তে জাপানের বিরুদ্ধে খেলার আগে জার্মানির খেলোয়াড়রা হাত দিয়ে মুখ ঢেকে রেখেছিল।

বিশ্ব ফুটবল সংস্থা ফিফা ৭টি ইউরোপীয় দলকে বৈচিত্র এবং সহনশীলতার প্রতীক আর্মব্যান্ড পরলে নিষেধাজ্ঞার হুমকি দেয়ার পরে, খেলা শুরু হওয়ার আগে কয়েক ডজন ফটোগ্রাফারের সামনে জার্মানির সব খেলোয়াড় প্রতীকী এ প্রতিবাদে অংশ নেয়।

জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ন্যান্সি ফেসার ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফ্যান্টিনোর পাশে বসে ফুটবলের প্রশাসকের সাথে কথা বলার সময় আর্মব্যান্ড পরেছিলেন।

এর আগে ফিফার সমালোচনা করে তিনি বলেছিলেন যে, নিষেধাজ্ঞার হুমকি একটি ভুল সিদ্ধান্ত এবং এটি গ্রহণযোগ্য আচরণ নয়।

খেলার আগে দোহায় জার্মান এফএ ইভেন্টে যাওয়ার সময় ফয়সার বলেছিলেন, “যেভাবে ফেডারেশনগুলোকে চাপের মধ্যে রাখা হচ্ছে, তা ঠিক নয়।”

“আজকের সময়ে এটা বোধগম্য নয় যে, ফিফা কেন চায় না যে, মানুষ প্রকাশ্যে সহনশীলতার পক্ষে দাঁড়াবে এবং বৈষম্যের বিরুদ্ধে দাঁড়াবে। এটা আমাদের সময়ের সাথে খাপ খায় না এবং এটি মানুষের জন্য সঠিক নয়।”

জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়াশনের (ডিএফবি) এক বিবৃতিতে বলা হয়েছেঃ “আমরা জার্মানির জাতীয় দলে যে মূল্যবোধগুলো ধারণ করি- বৈচিত্র্য এবং পারস্পরিক শ্রদ্ধা- সেগুলোর জন্য আমরা আমাদের অধিনায়কের আর্মব্যান্ড ব্যবহার করতে চেয়েছিলাম। জাতি হিসেবে আমরা চাই, আমাদের বক্তব্য যেন শোনা হয়।”

কাতারে সমকামিতা অবৈধ।

XS
SM
MD
LG