অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী এবং ইউক্রেন দূতাবাসে পাঠানো পত্র বোমা সম্পর্কে তদন্ত করছে স্পেন


স্পেনের মাদ্রিদে ইউক্রেন দূতাবাসের পাশে হলুদ ভেস্টে থাকা অন্যান্য কর্মকর্তাদেরকে ঘেরাও করা এলাকায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ অফিসাররা পাহারা দিচ্ছে। ৩০ নভেম্বর, ২০২২।

বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন যে, মাদ্রিদে ইউক্রেনের দূতাবাসে পত্র বোমা পাঠানো একটি সন্ত্রাসী কার্যক্রম এবং তিনি দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

স্পেনের কর্তৃপক্ষ বলেছে, এরকম বোমা স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজের ঠিকানাসহ বিভিন্ন ঠিকানায় পাঠানো হয়েছিল এবং সেগুলো আটকানো হয়েছে।বুধবার ইউক্রেনের দূতাবাসে যেটি পাঠানো হয় সেটির বিস্ফোরণে একজন কর্মী আহত হন।

রোমানিয়ায় নেটোর এক বৈঠকের ফাঁকে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রী দ্যমিত্র কুলেবা বলেন, পত্র বোমাটি খুবই গুরুতর একটি বিষয় এবং তারা সাবধানে বিষয়টি অনুসরণ করছেন।

তিনি বলেন, “আন্তর্জাতিক আইন দ্বারা সুরক্ষিত কূটনৈতিক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এই আক্রমণ,” এবং তিনি বিদেশের মাটিতে অবস্থিত সমস্ত ইউক্রেনীয় কূটনৈতিক প্রতিষ্ঠানকে অবিলম্বে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কঠোর করার নির্দেশ দিয়েছেন।

কুলেবা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, “প্রত্যেক ইউক্রেনীয়কে শুধুমাত্র ইউক্রেনেই নয়, বিদেশেও সকল উপায়ে রক্ষা করা হবে।”

স্পেনের কর্মকর্তারা বলেছেন, প্যাকেজগুলো বৃহস্পতিবার স্পেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক এবং টোরেজন দে আরদোজ বিমান ঘাঁটিতেও পৌঁছেছে। আরেকটি প্যাকেজ বুধবার ইন্সটালাজায় পৌঁছায়। এই কোম্পানির তৈরি গ্রেনেড লঞ্চার স্পেন ইউক্রেনে পাঠিয়েছে।

প্যাকেজগুলো কারা পাঠিয়েছে সে সম্পর্কে তদন্ত চলছে।

এ প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি, এএফপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG