অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাষ্ট্রদূত হাস-এর সঙ্গে ঘটা পরিস্থিতি নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে দেখার সুযোগ নেই: পররাষ্ট্র সচিব মোমেন


বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেছেন, “রাষ্ট্রদূত পিটার হাস যে পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছেন তাকে নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে দেখা যাবে না।” বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “এটিকে নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে দেখার কোনো সুযোগ নেই।” পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন উল্লেখ করেন যে এই ঘটনা, দীর্ঘ ৫০ বছরের ঢাকা-ওয়াশিংটন সম্পর্কের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না।

রাষ্ট্রদূত হাস বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর শাহীনবাগে গুমের শিকার ব্যক্তিদের স্বজনদের সংগঠন মায়ের ডাক -এর সমন্বয়ক সানজিদা ইসলামের বাসায় যান। সানজিদা বিএনপি নেতা সাজেদুল ইসলাম সুমনের বোন, যিনি ২০১৩ সালে নিখোঁজ হন বলে জানা গেছে।

রাষ্ট্রদূত হাস সেখানে পৌঁছালে, তিনি অন্য একটি সংগঠনের সদস্যদের মুখোমুখি হন। সংগঠনটির নাম মায়ার কান্না। মায়ের কান্না, পূর্ববর্তী শাসক বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের প্রশাসনের নির্যাতনের শিকার পরিবারের সদস্যদের একটি মঞ্চ।

ঘটনার পর, জরুরি ভিত্তিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের সঙ্গে দেখা করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেন। আমি তাকে বলেছিলাম যে আপনার এবং আপনার নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব। আমি তাকে (হাস) জিজ্ঞেস করলাম, কেউ তাকে বা তার লোকদের ওপর আক্রমণ করেছে কি-না? তিনি উত্তর দেন, না।”

পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন যে তিনি চাইলে রাষ্ট্রদূতকে অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রদান করবেন। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ বলেছে যে তারা বাংলাদেশ সরকারের ‘উচ্চ পর্যায়ে’ এই বিষয়ে তাদের ‘উদ্বেগ’ উত্থাপন করেছে।

XS
SM
MD
LG