অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

দাসপ্রথার জন্য ক্ষমা চাইবেন ডাচ প্রধানমন্ত্রী


ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট নেদারল্যান্ডসের দি হেগে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন। ১৯ মার্চ, ২০২০। ফাইল ছবি।

নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট সোমবার একটি বক্তব্য রাখতে যাচ্ছেন যেখানে তিনি দাস ব্যবসায় দেশটির ভূমিকা এবং দাসত্বের দীর্ঘস্থায়ী প্রভাবের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

জার্মান সম্প্রচারকারী ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, ডাচ মন্ত্রীরা এই অনুষ্ঠানের জন্য প্রাক্তন ডাচ উপনিবেশগুলোতে ভ্রমণ করেছেন।

সমস্ত প্রাক্তন উপনিবেশ এবং সক্রিয় কর্মী গোষ্ঠীগুলো যেভাবে অনুষ্ঠানটি করা হয়েছে সে সম্পর্কে তারা খুশি নয়। তারা বলেছে, এটিতে “একটি ঔপনিবেশিক অনুভূতি” রয়েছে এবং এ অনুষ্ঠান সম্পর্কে তাদের সাথে পরামর্শ করা হয়নি।

ডাচরা প্রায় ৬ লাখ আফ্রিকানকে প্রধানত ক্যারিবিয়ান এবং দক্ষিণ আমেরিকায় দাস হিসেবে কাজ করার জন্য পাচার করেছিল।

ফ্রি ইউনিভার্সিটি অফ আমস্টারডামের বৈশ্বিক অর্থনৈতিক এবং সামাজিক ইতিহাসের অধ্যাপক পেপিজন ব্র্যান্ডন বিবিসিকে বলেছেন, “নেদারল্যান্ডস ইউরোপীয় সমাজগুলোর মধ্যে অন্যতম যাদের দাসপ্রথার সাথে সবচেয়ে প্রত্যক্ষ এবং ব্যাপক সম্পর্ক ছিল।”

বিবিসি অনুসারে, সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদনে দেখা গেছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রকের অশ্বেতাঙ্গ কর্মকর্তারা বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়েছেন এবং তারা পদোন্নতির ক্ষেত্রে বাধাগ্রস্থ হয়েছেন। বিবিসি জানায়, প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে, অভ্যন্তরীণ যোগাযোগে আফ্রিকান দেশগুলোকে “বানরের দেশ” হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

XS
SM
MD
LG