অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে বড়দিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী


বড়দিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী
বাংলাদেশের খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নেতাদের সঙ্গে বড়দিনের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী রবিবার যথাযথ মর্যাদায় পালিত হবে শুভ বড়দিন। এ উপলক্ষে তিনি খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সকলকে শুভেচ্ছা জানান।

বুধবার (২১ ডিসেম্বর) শেখ হাসিনা তার কার্যালয় থেকে, রাজধানী ঢাকার বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলে, একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এ সময় তিনি খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নেতাদের সঙ্গে বড়দিনের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “সরকার বাংলাদেশে বসবাসকারী সব ধর্মের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা বাংলাদেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে আসছি। এখানে সব মানুষের সমান অধিকার রয়েছে।” শেখ হাসিনা বলেন, “বাংলাদেশ কোনো একক ধর্মাবলম্বী মানুষের দেশ নয়, সব ধর্মের মানুষের দেশ। আমরা সব ধর্মীয় বিশ্বাসের কল্যাণের জন্য কাজ করি।”

তিনি জানান যে তার সরকার যে কোনো সমস্যায়, সব সময় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি হিজড়া সম্প্রদায় ও অন্যান্য সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন। ইসলাম ধর্মে হিজড়াদের অধিকার নিশ্চিত করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “আমরা সংবিধানে তাদের (হিজড়াদের) অধিকার সুরক্ষিত করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উল্লেখ করেন, যদি তিনি দেখেন যে কোনো বিশেষ সম্প্রদায় পিছিয়ে আছে, তাহলে তিনি তাদের এগিয়ে নিয়ে আসবেন এবং তাদের জন্য শিক্ষা, চাকরি, জীবিকা এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করবেন।

মসজিদভিত্তিক শিক্ষার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার হিন্দু মন্দির, গীর্জা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে একই শিক্ষার ব্যবস্থা করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “আমি চাই আপনারা সবাই নিজ নিজ অধিকার নিয়ে এদেশে বসবাস করুন… বঙ্গবন্ধু এই দেশকে স্বাধীন করেছেন এবং এর সুফল সব মানুষ ভোগ করবে।”

XS
SM
MD
LG