অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আইভরির ৪৯ জন সৈন্যকে ক্ষমা করে দিয়েছেন মালির জান্তা নেতা


মালির ক্ষমতাসীন জান্তার নেতা লেফটেন্যান্ট কর্নেল আসিমি গোইতা (মধ্যে), মালির বামাকোতে স্বাধীনতা দিবসের একটি সামরিক কুচকাওয়াজে অংশ নেন, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২। (ফাইল ছবি)

মালি সরকারের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন যে মালির জান্তা নেতা শুক্রবার আইভোরির ৪৯ জন সৈন্যকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। একটি আদালত তাদের শাস্তি দেওয়ার মাত্র এক সপ্তাহ পর তাদের ক্ষমা করা হলো। গত জুলাই মাসে তাদের গ্রেফতারের পর একটি তিক্ত কূটনৈতিক লড়াই শুরু হলে তাদের ক্ষমা করা হয়।

“কর্নেল আসিমি গোইতা মালির বিচার ব্যবস্থায় দোষী সাব্যস্ত আইভোরির ৪৯ জন সৈন্যকে তাদের সাজা থেকে সম্পূর্ণভাবে ক্ষমা করে দিয়েছেন।” আঞ্চলিক প্রশাসন ও বিকেন্দ্রীকরণ মন্ত্রী ও সরকারী মুখপাত্র কর্নেল আব্দুলাই মাইগা এক বিবৃতিতে একথা জানান।

৩০ শে ডিসেম্বর, ৪৬ জন সৈন্যকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ৪৯ জনের এই দলের মধ্যে তিনজন নারী ছিলেন, যারা সেপ্টেম্বরের প্রথম দিকে মুক্তি পান। এই নারীদের তাদের অনুপস্থিতিতে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

ঐ সময় পাবলিক প্রসিকিউটর লাডজি সারা এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, “সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের ও হামলা পরিচালনা এবং রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তাকে দুর্বল করার চেষ্টার জন্য তাদের দোষী সাব্যস্ত করা হয়।”

২৯ শে ডিসেম্বর রাজধানী বামাকোতে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয় এবং পরের দিন তা শেষ হয়।

এই সৈন্যদের মুক্তির বিষয়ে আলোচনার জন্য ইকোনোমিক কমিউনিটি অফ ওয়েস্ট আফ্রিকান স্টেটস(ইকোওয়াস) নেতাদের বৈঠক হওয়ার কথা রবিবার। বৈঠকের লক্ষ্য ছিল, সৈন্যদের মুক্তি অথবা মালির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা। বৈঠকের আগেই আদালত কার্যক্রম শুরু করে।

১০ জুলাই বামাকো বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর, সৈন্যদের ভাড়াটে সৈন্য হিসেবে চিহ্নিত করে তাদের আটক করে মালির জান্তা সরকার।

আইভরি কোস্ট ও জাতিসংঘ বলছে, মালিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের জার্মান দলের জন্য নিয়মিত বাড়তি নিরাপত্তা প্রদানের লক্ষ্যে এই সেনাদের সেখানে পাঠানো হয়েছিল।

সেনাদের গ্রেফতারে আগে থেকেই ইকোওয়াস এবং মালির সম্পর্কের মধ্যে টানাপোড়েন চলছিল।২০২০ সালের আগস্টে জিহাদি বিদ্রোহীদের দমনে ব্যর্থতার অভিযোগে ক্ষুব্ধ কর্মকর্তাদের দ্বারা প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বুবার কেইতা ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

পশ্চিম আফ্রিকার চাপ ও নিষেধাজ্ঞা এড়ানোর জন্য জান্তা সরকার ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে পদত্যাগ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এবং এখনও ক্ষমতায় রয়েছে।

আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে তারা ৪৯ জন সৈন্যকে অভিযুক্ত করে এবং তখন থেকে তাদের সুস্থতা ও ভালো-মন্দ সম্পর্কে কোনও তথ্য প্রকাশ করেনি।

XS
SM
MD
LG