অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশাল মেডিকেল ক্রাইমের শিকার হয়েছি: তসলিমা নাসরিন


বিশাল মেডিকেল ক্রাইমের শিকার হয়েছি: তসলিমা নাসরিন।

প্রবাসে থাকা বাংলাদেশি লেখক তসলিমা নাসরিন বলেছেন যে ভারতে তিনি বিশাল মেডিকেল ক্রাইমের শিকার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে তসলিমা নাসরিন বলেন, “আমি আমার বাড়ির মেঝেতে পড়ে গিয়েছিলাম এবং আমার সাধারণ ফেমোরাল নেক ফ্র্যাকচারের ইন্টারনাল ফিক্সেশানের জন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে গিয়েছিলাম। ডাক্তাররা ফিক্সেশান করতে চাননি, তারা কোনো ইঙ্গিত ছাড়াই আমার টোটাল হিপ রিপ্লেসমেন্ট করেছেন। আজীবনের জন্য পঙ্গু করে দিয়েছেন।”

তসলিমা নাসরিন আরেকটি পোস্টে লেখেন, “আমি আজ আমার এক্সরে রিপোর্ট দেখেছি। এক্সরে রিপোর্টে আমার ফিমারে বা কোথাও কোন ফ্র্যাকচার দেখা যাচ্ছেনা। আমি আমার হাঁটুতে, পড়ে যাওয়ার পর আমার হাঁটুর ব্যথার চিকিৎসার জন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে এসেছি। আমার কখনো জয়েন্টে ব্যথা বা জয়েন্টের কোনো রোগ হয়নি। কিন্তু আমার সম্পূর্ণ হিপ রিপ্লেসমেন্ট করা হয়েছে।”

তিনি পোস্টে আরও বলেছেন, “আমি বিশাল মেডিকেল ক্রাইমের শিকার হয়েছি। আমি একজন সুস্থ ও ফিট মানুষ ছিলাম। আমার হাঁটুর স্ট্রেনের চিকিৎসার নামে তারা আমার সুস্থ শরীরের অংশ কেটে ফেলেছে; আমার সুস্থ হিপের জয়েন্ট, আমার ফিমার কেটে ফেলেছে। তারা আমাকে সারাজীবনের জন্য পঙ্গু বানিয়ে দিয়েছে।” শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) আরেকটি ফেসবুক পোস্টে তিনি লেখেন, “লাখ লাখ টাকা দিয়ে হাসপাতাল থেকে পঙ্গুত্ব কিনে বাড়ি ফিরলাম।”

XS
SM
MD
LG