অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগান জাতীয় নিরাপত্তা প্রধানের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগাযোগ বন্ধ


Photo/Rahmat Gul)

পাকিস্তান আফগানিস্তানের নেতৃত্বকে জানিয়ে দিয়েছে যে, কাবুলের শীর্ষ জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান সম্প্রতি ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে যে বিষোদ্গার করেছেন সে কারণে পাকিস্তান তাঁর সঙ্গে কোন রকম দাপ্তরিক কাজে সম্পৃক্ত হবে না। উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং কুটনৈতিক সুত্র থেকে শুক্রবার এই খবর নিশ্চিত করা হয়। এই বিরোধ আবারও দক্ষিণ এশিয়ার এই দুটি প্রতিবেশী রাষ্ট্র যাদের প্রায় ২৬০০ কিলোমিটার অভিন্ন সীমান্ত রয়েছে তাদের মধ্যকার রাজনৈতিক উত্তেজনা এবং ইতিহাসের অনাস্থাকেই তুলে ধরছে।

এই সর্বসাম্প্রতিক উত্তেজনার সুত্রপাত আফগান প্রেসিডেন্ট আসরফ গণির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হামদুল্লাহ মোহিবের কাছ থেকে যিনি আফগানিস্তানে তালিবান বিদ্রোহকে সমর্থন এবং তাদের দিক নির্দেশনা দেয়ার জন্য নিয়মিত ভাবেই পাকিস্তান এবং তার গোয়েন্দা সংস্থাকে দোষারোপ করে থাকেন, তবে ইসলামাবাদ সরকার এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। এ মাসের গোড়ার দিকে পাকিস্তানের সীমান্তবর্তী আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় নানগারহার প্রদেশে দেয়া এক প্রকাশ্য ভাষণে মোহিব অভিযোগগুলোর পূণরাবৃত্তিই শুধু করেননি বরঞ্চ পাকিস্তানকে তাঁর কথায় “যৌনকর্মীদের আবাসস্থল” বলে অভিহিত করেছেন।

তাঁর মন্তব্যে পাকিস্তানের নেতারা ক্ষুব্ধ হয়েছেন এবং বলেছেন এ মন্তব্য আন্তঃরাষ্ট্রীয় যোগাযোগকে খর্ব করেছে। নাম প্রকাশ করা হবে না এই শর্তে একজন শীর্ষ পাকিস্তানি কর্মকর্তা ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেছেন তাঁর সরকার আফগানিস্তানের কাছে প্রচন্ড প্রতিবাদ জানিয়েছে এবং মোহিবের এই রুচিহীন মন্তব্যের জন্য গভীর অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। কর্মকর্তাটি বলেন, কাবুলকে জানানো হয়েছে এর পর থেকে ইসলামাবাদ সরকার আফগান জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে আর কোন দ্বিপাক্ষিক কর্মে সংযুক্ত হবে না।

.

XS
SM
MD
LG