অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আশরাফ গনি এখন সংযুক্ত আরব আমিরাতে


আশরাফ গনি

সংযুক্ত আরব আমিরাত জানিয়েছে, চলতি সপ্তাহের শুরুতে তালিবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেবার পর, দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আশ্রয় নিয়েছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা মন্ত্রক একথা নিশ্চিত করে এক বিবৃতিতে বলেছে, “সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি এবং তার পরিবারকে মানবিক ভিত্তিতে তাঁদের দেশে স্বাগত জানিয়েছে”।

তালিবান যোদ্ধারা কোনরকম প্রতিরোধ ছাড়াই কাবুলে পৌঁছানোর আগেই রবিবার গনি আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে যান। পরে গনি তাঁর এক ফেসবুক পোস্টে উল্লেখ করেছেন, “তালিবান জিতে গেছে” এবং “রক্তপাতের বন্যা” রোধ করার জন্যই তিনি আফগানিস্তান ত্যাগ করেছেন।

বুধবার পর্যন্ত মনে করা হচ্ছিল, গনি ওমান, তাজিকিস্তান বা উজবেকিস্তানে হয়তো পালিয়েছিলেন।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তান তালিবান শাসনের অধীন ছিল। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পর আমেরিকান নেতৃত্বাধীন বাহিনীর আক্রমণে তালিবানকে আফগানিস্তান থেকে উৎখাত করা হয়। এরপর দীর্ঘ ২০ বছর ধরে চলা যুদ্ধে লক্ষ লক্ষ মানুষের মৃত্যুর পর, চলতি মাসে মাত্র ১০ দিনে প্রায় কোন রকম রক্তপাত ছাড়াই আফগানিস্তানের প্রধান শহরগুলো দখল করে নেয় তালিবান যোদ্ধারা।

আশ্চর্যজনক দ্রুত সময়ের মধ্যে তালিবান দেশটি দখল করে নেয় বলে এই সপ্তাহের শুরুতে স্বীকার করেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তারপরও আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের তাঁর সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল বলে দৃঢ়তার সাথে তিনি উল্লেখ করেন।

বাইডেন বলেন, “আফগানিস্তানের রাজনৈতিক নেতারা হাল ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে গেছেন। যুদ্ধের কোনরকম চেষ্টা না করেই আফগান সামরিক বাহিনী ভেঙে পড়ে ... আফগানিস্তানের সৈন্যরাই যেখানে যুদ্ধে অংশ নিচ্ছে না, সেখানে আমেরিকান সৈন্যদের আরও যুদ্ধে লিপ্ত হওয়ার আদেশ দেওয়া ভুল”।

XS
SM
MD
LG