অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

করোনার সুযোগ নিয়ে সরকার মিডিয়ার স্বাধীনতা খর্ব করছে- আইএফজে


বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সুযোগ নিয়ে সরকার গণমাধ্যম কর্মীদের গ্রেপ্তার ও কথা বলার স্বাধীনতাকে সেন্সর করছে। ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব জার্নালিস্টস (আইএফজে) এই অভিযোগ এনেছে। সাংবাদিকদের অধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থাটি এক বিবৃতিতে অবিলম্বে সাংবাদিক, যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী এবং মিডিয়া কর্মীদের হুমকি ও তাদের ওপর হামলা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে। সংস্থাটি বলেছে, করোনা মহামারি শুরুর পর থেকেই স্বাস্থ্য সংকট নিয়ে গৃহীত পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে অথবা সরকারের সমালোচনা করেছে এমন মিডিয়ার স্বাধীনতা খর্ব ও তাদের ওপর চাপ বৃদ্ধি করেছে। এমনকি অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। করোনাভাইরাস নিয়ে কথিত গুজব ছড়িয়ে দেয়ার ব্যাপারে বাড়িয়েছে নজরদারি। এতে সম্প্রীতি ধ্বংস করে এবং অস্থিরতা সৃষ্টি করে এমন লেখা প্রকাশ করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ করা হয়েছে। অন্তত তিনজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। আইএফজের জেনারেল সেক্রেটারি অ্যান্থনি বেলাঙ্গার বলেছেন, সমালোচকদের কণ্ঠরোধ ও সেন্সরের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার তার ম্যান্ডেট লঙ্ঘন করে চলেছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:39 0:00
সরাসরি লিংক

ওদিকে গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তি যারা টিকাদান কেন্দ্রে আসতে পারছেন না তাদের কাছে কীভাবে টিকা পৌঁছানো যায় তা নিয়ে চিন্তাভাবনা চলছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমনটাই জানিয়েছেন। বলেছেন, সরকার সবার কাছে টিকা পৌঁছাতে চায়। মন্ত্রী বলেন, টিকা নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি। যারা টিকা নিয়েছেন তারা সবাই সুস্থ ও নিরাপদে রয়েছেন। প্রায় ১৬ লাখ মানুষ ইতিমধ্যেই টিকা নিয়েছেন। আগামী ২২শে ফেব্রুয়ারি ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে আরও ২০ লাখ ডোজ টিকা আসবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো আট হাজার ৩২৯ জন। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩৯১ জন। সবমিলিয়ে পাঁচ লাখ ৪২ হাজার ২৬৮ জন শনাক্ত হয়েছেন।

XS
SM
MD
LG