অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রবিবার বাংলাদেশে পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস


রাষ্ট্র কর্তৃক মানবাধিকার লংঘনের নানা অভিযোগের মধ্যদিয়ে রোববার বাংলাদেশে পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস। বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করেছে। প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, বিএনপি চেয়ারপারসন দিবসটি উপলক্ষে পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে এবারে গভীর উদ্বেগের সাথে সবচেয়ে বেশি আলোচিত বিষয় ছিল দুটো-গুম আর বিচার বহিভর্‚ত হত্যাকান্ড। মানবাধিকার সংগঠনগুলো তাদের প্রতিবেদনে বলছে, এ বছরের জানুয়ারি থেকে নভেম্বর পর্যন্ত গুম হয়েছেন ৮০ জন ব্যক্তি-যার মধ্যে রয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রদূত, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী থেকে সাধারণ মানুষ সবাই। আর এ বছরের এই ১১ মাসে কথিত বন্দুকযুদ্ধসহ বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন ১৪৪ জন। গত বছরে গুম হয়েছিলেন ৯০ জন, আর বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের শিকার ১৭৮ জন।
গুমের ঘটনা গত কয়েক বছর ধরে বেড়েই চলেছে। ২০১৬ সাল থেকে সাম্প্রতিক সময় পর্যন্ত যে বেশ কিছু মানুষ গুম হয়েছেন-আর ফিরে আসেননি-এ ধরনের ২৭টি পরিবারের পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয় এক আলোচনা অনুষ্ঠানের। ওই অনুষ্ঠানে ভুক্তভোগী কয়েকটি পরিবারের স্বজন, অনুষ্ঠানে উপস্থিত মাহমুদুর রহমান মান্না, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আবরার চৌধুরী ও মানবাধিকার সক্রিয়বাদী নূর খান তাদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।
এদিকে, দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি সম্পর্কে ভয়েস অফ আমেরিকার জন্য বিশ্লেষণ করেছেন, ঢাকার ইংরেজী দৈনিক নিউ এইজ সম্পাদক নুরুল কবীর।

XS
SM
MD
LG