অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সেনাবাহিনীকে যুদ্ধক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেয়ার কথা বললেন ইথোপিয়ার প্রধানমন্ত্রী


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ইথিওপিয়ার আদ্দিস আবাবার মেসকেল স্কোয়ারে ইথিওপিয়ান ন্যাশনাল ডিফেন্স ফোর্স এর প্রতি সমর্থন দেখানোর জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষ আয়োজিত একটি সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের ছবিযুক্ত একটি ব্যানারের পেছনে জনগণ জড়ো হয়েছে। নভেম্বর ০৭, ২০২১।

নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ বলেছেন, মঙ্গলবার থেকে তিনি তার দেশের সেনাবাহিনীকে যুদ্ধক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেবেন। এটি সে দেশে বছরব্যাপী বিধ্বংসী যুদ্ধে একটি নাটকীয় নতুন পদক্ষেপ।

সোমবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করা এক বিবৃতিতে আবি আহমেদ বলেন, এটি এমন একটি সময় যখন শহীদ হলেও নেতৃত্ব দেয়া প্রয়োজন। প্রতিপক্ষ টিগ্রায় বাহিনী রাজধানী আদ্দিস আবাবার কাছাকাছি চলে আসার সঙ্গে সঙ্গে আবি আহমেদের সরকার এই মাসের শুরুতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।

ইথিওপিয়ান, মিত্র বাহিনী এবং দেশটির টিগ্রায়ের উত্তরাঞ্চীয় যোদ্ধাদের মধ্যে যুদ্ধে আনুমানিক দশ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। আবি আহমেদ ক্ষমতায় আসার আগে দেশের উত্তরে টিগ্রায় অঞ্চলের যোদ্ধারা দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় সরকারে আধিপত্য বিস্তার করেছিল।

যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্যান্যরা সতর্ক করে দিয়েছে যে, আফ্রিকার দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল দেশটি আফ্রিকা শৃঙ্গে ফাটল ধরাতে এবং পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার ঠিক কোথায় যাবেন তা তার বিবৃতিতে বলেননি। প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ একজন সাবেক সৈন্য।

প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্রী বিলেন সেয়ুমের কাছে এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য অনুরোধ করা হলে, তিনি কোন সাড়া দেননি।

XS
SM
MD
LG