অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হ্যালো ওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্র-ইরান সম্পর্ক এবং মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতি


Iran

ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্ক কেবল নয়, সর্বসাম্প্রিতক সংবাদে তো মনে হচ্ছে ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি সম্পাদনকারী অন্যান্য দেশের সম্পর্কও তিক্ত হয়ে যেতে পারে। এই তো মাত্র গতকালই ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছে যে, এ ব্যাপারে তারা অবিচল এবং স্পষ্ট করে বলতে চায় যে পরমাণু চুক্তির ব্যাপারে তাদের প্রতিশ্রুতি নির্ভর করছে ইরান তা সম্পুর্ণ ভাবে মেনে চলছে কীনা তার উপর। তারা ইরানকে বলেছে যে, তারা যেন আর কোন এমন পদক্ষেপ না নেয় যাতে এই চুক্তিকে খর্ব করা হয়। অন্যদিকে আবার ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি আজই বলেছেন, দিন কয়েকের মধ্যেই ইরান উচ্চতর পরিমাপে ইউরেনিয়াম পরিশোধনের কাজ শুরু করবে, যদি না ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো নিষেধাজ্ঞা থেকে ইরানকে মুক্ত করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

এতে এই আশংকা দেখা দিয়েছে যে ইরান ৩.৬৭% পর্যন্ত ইউরেনিয়াম পরিশোধনের পরিমাণ ৩০০ কিলোগ্রামের সীমা ছাড়িয়ে যাবে। তা হলে দেখা যাচ্ছে সেখানে একটা দরকষাকষির ব্যাপারও রয়েছে।

আমাদের অতিথি প্যানেলে আজ রয়েছেন ঢাকা থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক শাহাব এনাম খান, বর্তমানে মধ্য প্রাচ্যে রয়েছেন রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বিশ্লেষক ড. মোহাম্মদ ওমর ফারুক, আরো আছেন বর্তমানে মালদ্বীপ সফর করা কলকাতার সাংবাদিক সুমন ভট্টাচার্য। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেছেন আনিস আহমেদ।

please wait

No media source currently available

0:00 0:44:32 0:00

XS
SM
MD
LG