অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কভিড-১৯’এর ভারতীয় প্রকরণ : বাংলাদেশে প্রবেশ, প্রতিক্রিয়া ও প্রতিরোধ


বাংলাদেশে কভিড ১৯ এর ভারতীয় প্রকরণের প্রবেশের খবর পাওয়া যাচ্ছে। যদিও বাংলাদেশে তূলনামূলক ভাবে  এখনও কভিড ১৯ এর সংক্রমণ ও প্রাণহানির সংখ্যা কম তবুও স্বাস্থ্য বিধি পুরোপুরি নাম মানার কারণে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যে আরও বাড়তে পারে সে আশংকাকে একেবারে অমূলক বলে নাকচ করা যাবে না। বাংলাদেশে টীকা প্রদানের ব্যাপারে সম্প্রতি সেখানকার স্বাস্থ্য মন্ত্রক বলছে যে সেখানে ৩৮ লক্ষেরও বেশি  মানুষকে দ্বিতীয় ডোজ টীকা দেয়া হয়েছে তবু প্রশ্ন  থেকে যায় যে ভারতীয় প্রকরণের ক্ষেত্রে এই টীকা কতখানি কার্যকর হতে পারে এবং এই ভারতীয় প্রকরণ বাংলাদেশের জন্য কি ধরণের বিপদ ডেকে আনতে পারে

বাংলাদেশে কভিড ১৯ এর ভারতীয় প্রকরণের প্রবেশের খবর পাওয়া যাচ্ছে। যদিও বাংলাদেশে তূলনামূলক ভাবে এখনও কভিড ১৯ এর সংক্রমণ ও প্রাণহানির সংখ্যা কম তবুও স্বাস্থ্য বিধি পুরোপুরি নাম মানার কারণে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যে আরও বাড়তে পারে সে আশংকাকে একেবারে অমূলক বলে নাকচ করা যাবে না। বাংলাদেশে টীকা প্রদানের ব্যাপারে সম্প্রতি সেখানকার স্বাস্থ্য মন্ত্রক বলছে যে সেখানে ৩৮ লক্ষেরও বেশি মানুষকে দ্বিতীয় ডোজ টীকা দেয়া হয়েছে তবু প্রশ্ন থেকে যায় যে ভারতীয় প্রকরণের ক্ষেত্রে এই টীকা কতখানি কার্যকর হতে পারে এবং এই ভারতীয় প্রকরণ বাংলাদেশের জন্য কি ধরণের বিপদ ডেকে আনতে পারে । এ সব বিষয়ে আলোকপাত করেছেন লন্ডনের দ্য সেন্টার ফর ইন্টারন্যশনাল চাইল্ড হেলথ ‘এর মা ও শিশু স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ডা জাকি রেজওয়ানা আনোয়ার । আর তাঁর সঙ্গে স্কাইপে কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ড থেকে ভয়েস অফ আমেরিকার মাল্টিমিডিয়া সংবাদ সম্প্রচারক আনিস আহমেদ।

ভিডিও চিত্রগ্রহণ ও সম্পাদনা: সাফিউল মাসুদ

XS
SM
MD
LG