অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক বিষয়ক সংলাপ ভিয়েনায় অব্যাহত থাকবে 


অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অফ অ্যাকশন বৈঠকের স্থান, পেলাই কোবার্গের সাধারণ দৃশ্য, ফাইল ছবি, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১, ছবি/লিসি নাইসনার/রয়টার্স

ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সীমিত করার বিনিময়ে নিষেধাজ্ঞা অব্যাহতির শর্তে ২০১৫ সালে করা চুক্তিটি পুনরুজ্জীবিত করার বিষয়ে চলমান সংলাপটি, সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো নববর্ষের জন্য বিরতি নেওয়ার পর, সোমবার ভিয়েনায় আবার শুরু হয়।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের একজন মুখপাত্র সোমবার জানান যে সংলাপটি “একটি গভীর আলোচনা পর্বে প্রবেশ করছে”।

যদিও ইরান এবং যুক্তরাষ্ট্র কিছু অগ্রগতির বিষয় উল্লেখ করেছে, তবু ইরান তাদের ভাষ্যমতে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে “চরম দাবি-দাওয়ার” অভিযোগ তুলেছে। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র নেড প্রাইস গত সপ্তাহে বলেন যে সংলাপের বর্তমান পর্বটিতে ইরান “আরও গঠনমূলক পদ্ধতি নিচ্ছে ” তা বলার সময় এখনও আসেনি।

উভয়পক্ষই চুক্তিটি সম্পূর্ণরূপে পুনরুজ্জীবিত করার অভিপ্রায়ের ইঙ্গিত করেছে। এপ্রিলে সংলাপটি শুরু হওয়ার পর থেকে, চুক্তিটিতে স্বাক্ষরকারী অন্যান্য পক্ষ শুধুমাত্র পরোক্ষ আলাপের মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের প্রতিনিধিদলের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করেছে।

জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অফ অ্যাকশন নামে পরিচিত চুক্তিটি থেকে, সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে, ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের প্রত্যাহার করে নেয়।

পরবর্তীকালে ইরান চুক্তিতে করা নিজেদের প্রতিশ্রুতি থেকে সরে আসে, যেগুলোর মধ্যে রয়েছে সর্বোচ্চ সীমার বেশি ইউরেনিয়াম মজুদ, ইউরেনিয়ামকে আরও উচ্চ মানে বিশুদ্ধিকরণ এবং আরও আধুনিক সেন্ট্রিফিউজ ব্যবহার করা।

ইরানের একটি স্যাটেলাইটবাহী রকেট উৎক্ষেপণের বিষয়ে ফ্রান্স শুক্রবার নিন্দা জানিয়ে বলেছে যে সেটি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি প্রস্তাব ভঙ্গ করেছে এবং ভিয়েনাতে চলমান সংলাপে অগ্রগতির সময়ে হওয়ায় ঘটনাটি “আরও অধিক দুঃখজনক”।

XS
SM
MD
LG