অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খাশোগজি হত্যা সকলের জন্যউদ্বেগের কারণ: প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ম্যাটিস


যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জিম ম্যাটিস শনিবার বলেছেন , “ কুটনৈতিক স্থাপনার ভেতর জামাল খাশোকজির হত্যা , আমাদের সবার জন্য উদ্বেগের কারণ।

বাহরাইনে নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলন বার্ষিক Manama Dialogue এ পূর্ব প্রস্তুত মন্তব্যে ম্যাটিস বলেন, আন্তর্জাতিক নিয়ম নীতি এবং আইনের শাসন মনে চলতে যে কোন দেশের ব্যর্থতা, এমন এক সময়ে আন্তর্জাতিক স্থিতিশীলতাকে খর্ব করছে , যখন এর প্রয়োজন সব চাইতে বেশি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন , পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও এরই মধ্যে কয়েকজন সৌদির ভিসা বাতিল করেছেন এবং দায়ি ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আরও কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

এ দিকে যুক্তরাষ্ট্রের এক খবরে বলা হয়েছে যে ইস্তাম্বুলে সৌদি কনসুলেটে নিহত সাংবাদিক জামাল খাশোগজির ছেলে , সালাহ বিন জামাল খাশোগজি , যুক্তরাষ্ট্রে এসে পৌঁছেছেন। একই সঙ্গে আমেরিকান ও সৌদি নাগরিক সালাহর উপর এ সপ্তার গোড়ার দিকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

মঙ্গলবার সৌদি যুবরাজ এবং বাদশাহ সালমানের সঙ্গে করমর্দনের যে ছবি ছাপা হয় , তার পর পরই সালাহর উপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। সি এন এন গতকালই জানায় যে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন তবে তাঁর অবস্থান সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

পররাষ্ট্র বিভাগ বলছে , পররাষ্ট্র মন্ত্রী পম্পেও , এই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় আনন্দিত। পম্পেও সৌদি কর্তৃপক্ষকে বলেছিলেন যেন সালাহ খাশোগজিকে দেশ ত্যাগের অনুমতি দেওয়া হয়।

এ দিকে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রী আদেল আল জুবেইর আজ বলেছেন যে খাশোকজি বিষয়টা মিডিয়ায় এক ধরণের উন্মাদনা সৃষ্টি করেছে। তিনি স্বীকার করেন সৌদি আরব কিছু ভুল করেছে , কিন্তু সেই সঙ্গে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন যে এই হত্যার ব্যাপারে সৌদি আরব স্বচ্ছ তদন্ত করবে। তবে হত্যার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে আটক ১৮ জনকে তুরস্কের কাছে হস্তান্তরের আহ্বান নাকচ করে দিয়ে তিনি বলেন , তারা সৌদি নাগরিক , তারা সৌদি আরবেই আটক রয়েছে , সৌদি আরবেই তাদের তদন্ত চলছে এবং সৌদি আরবেই তাদের বিচার হবে।

XS
SM
MD
LG