অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কোভিড-১৯ মহামারির পটভূমিতে জাতিসংঘে মিলিত হচ্ছেন বিশ্ব-নেতারা


ফাইল ছবি, জাতিসংঘ মহাসচিব ও অন্যান্য নেতারা বিশেষত আফগানিস্তান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে যোগ দিয়েছেন,ছবি, টিমোথি ক্লারি, ১৬ই অগাস্ট, ২০২১/এএফপি

এক বছরের বেশি সময় পরে এই প্রথম নিউ ইয়র্কে আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘে বিশ্বের নেতারা সরাসরি সম্মেলনে উপস্থিত হচ্ছেন। সেই সময়ে আফগানিস্তান, জলবায়ু বিষয়ক কর্মতত্পরতাএবং কোভিড-১৯ মহামারীর মত বিষয়গুলি আলোচ্যসূচির কেন্দ্রবিন্দুতে একেবারে শীর্ষে স্থান পাবেI

করোনা মহামারী জাতিসংঘে মুখোমুখি কূটনীতির প্রয়াস মন্থর করে দিয়েছিলো এবং গত সেপ্টেম্বর মাসেও বার্ষিক কোনো সম্মেলনের আয়োজন করা অত্যন্ত বিপদজ্জনক বলে মনে করা হয়েছিল, যে সম্মেলনে প্রায় ২০০ জন প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও তাদের বিশাল প্রতিনিধিদল সরাসরি যোগ দিয়ে থাকেন। তাই সবকিছুই ভার্চুয়াল সম্মেলনের মাধ্যমে করা হয়েছিল ।

টিকা এখন ছোট আকারের সম্মেলন করাকে নিরাপদ করেছে, যদিও ডেল্টা প্রকরণের আগ্রাসী বিস্তারের কারণে অনেকেই শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণে সময় নিয়েছেনI তাদের কাছে বিকল্প ব্যবস্থা ও রয়েছে, বাড়ি থেকেই তাঁরা ভিডিও বার্তা পাঠাতে পারেন, এমন ৫০জন নেতা এই সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। এই নেতাদের মধ্যে অনেকেই নিম্ন আয়ের দেশগুলির, যেখানে টিকার স্বল্পতা রয়েছে, যা টিকা সরবরাহ ও প্রাপ্যতার ক্ষেত্রে অসমতাই প্রমাণ করেI

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজ ব্রাসেলসে সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, "আমরা যা চাই তা হচ্ছে বিশ্বব্যাপী এক টিকা কর্মসূচি এবং আমরা চাই বিশ্বে যাদের ক্ষমতা রয়েছে, তাঁরা যেন সেই ক্ষমতাকে টিকার সমতা আনার কাজে ব্যবহার করেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা WHO এ বছরের শেষ নাগাদ বিশ্বব্যাপীপ্রতিটি দেশের ৪০% লোকের জন্য টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে এবং আগামী বছরের মাঝামাঝি নাগাদ বিশ্ব জনগোষ্ঠীর জন্য সেই লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ৭০%I

বিশ্বজুড়ে ৫৭০ কোটি ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে, যার মধ্যে টিকা বিতরণে সমতা রক্ষার বহুপাক্ষিক প্রয়াস, "কোভাক্স" কর্মসূচির আওতায় দেয়া হয়েছে ২৬ কোটি ডোজ টিকা। তবে স্বল্পবিত্তের দেশগুলি বিশেষত, আফ্রিকার দেশগুলি টিকা নেবার বেলায় এখনও অনেকটাই পিছিয়ে, যেখানে বিশ্ব টিকা প্রদানের নিরিখে মাত্র ২% ডোজ টিকা দেয়া হয়েছেI

XS
SM
MD
LG