অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাকিস্তানে উগ্র ইসলামপন্থী দলের সহিংস বিক্ষোভ বন্ধে সরকারের সাথে চুক্তি


ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বা ধর্মীয় নেতা মুফতি মুনিবুর রেহমানকে দেখা যাচ্ছে। অক্টোবর ৩১, ২০২১।

পাকিস্তান সরকার এবং একটি নিষিদ্ধ কট্টর ইসলামপন্থী দল ১০ দিনের দীর্ঘ র‍্যালী, যা কখনও কখনও মারাত্মক সহিংস হয়ে উঠেছিল, তা শেষ করতে রবিবার একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। ঐ কট্টর ইসলামপন্থী দলটি ফ্রান্সের দূতাবাস বন্ধ করার এবং দলের নেতার মুক্তির দাবিতে র‍্যালী করছিল।

রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে আলোচনায় অংশ নেয়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বা ধর্মীয় নেতা মুফতি মুনিবুর রেহমান, কেউই চুক্তির বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

নিষিদ্ধ ঘোষিত তেহরিক-ই-লাবিয়াক পাকিস্তান পার্টির হাজার হাজার সমর্থক ২২ অক্টোবর লাহোর থেকে ইসলামাবাদের দিকে র‍্যালী নিয়ে অগ্রসর হয়। ফ্রান্সে ইসলাম ধর্মের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের জন্য তারা পাকিস্তান থেকে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছিল।

সহিংসতায় কমপক্ষে সাতজন পুলিশ কর্মকর্তা এবং চারজন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন।

রেহমান বলেন, এক সপ্তাহ বা তার চেয়ে খানিকটা বেশি সময়ের মধ্যে চুক্তির বিশদ বিবরণ এবং ইতিবাচক ফলাফল জাতির সামনে আসবে। তিনি বলেছিলেন যে, তিনি টিএলপি দলের নেতা সাদ রিজভীর সমর্থন পেয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকার ইসলামপন্থী দলটির ফ্রান্সের দূতাবাস বন্ধ এবং রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি মেনে নেবে না- এমন কথা জানানোর একদিন পর সহিংসতা শুরু হয়।

XS
SM
MD
LG